সোমবার থেকে দিল্লিতে করোনা কেন্দ্রিক বিধি নিষেধ শিথিল হতে চলেছে

KGP 24X7: সোমবার থেকে দিল্লিতে করোনা কেন্দ্রিক বিভিন্ন বিধি নিষেধ শিথিল হতে চলেছে। রবিবার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানিয়েছেন। সোমবার থেকে দিল্লিতে দোকান, শপিং মল এবং রেস্তোরাঁ খোলা কে কেন্দ্র করে যেই বিধি নিষেধ চালু ছিল সেই বিধি নিষেধ শিথিল করা হবে। করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য দিল্লি সরকারের পক্ষ থেকে লকডাউন জারি করা হয়। তারপর ধীরে ধীরে দৈনিক সংক্রমণ কমার কারণে জোড়-বিজোড় নীতির উপর ভিত্তি করে দিল্লিতে দোকানপাট, শপিংমল খুলতে শুরু করে।

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানিয়েছেন সোমবার থেকে দিল্লিতে সব দোকান খোলা হবে, এবং দোকানগুলি সকাল ১০টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত খোলা থাকবে বলে তিনি জানিয়েছেন। এর পাশাপাশি প্রত্যেকটি মিউনিসিপাল জোনে একটি করে বাজার প্রতিদিন খোলা থাকবে বলে তিনি জানিয়েছেন। দিল্লি সরকারের পক্ষ থেকে এই আনলক প্রক্রিয়ায় সেলুন খোলার জন্য অনুমতি দেওয়া হলেও স্পা সেন্টার গুলি বন্ধ থাকবে বলে জানান হয়েছে।

পূর্বের মতোই ৫০% কর্মী নিয়ে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান গুলো তাদের কাজ চালিয়ে নিয়ে যাবে। সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলিকে ১০০% কর্মী নিয়ে কাজ চালাতে হবে বলে সরকারের পক্ষ থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর ৫০% যাত্রী নিয়ে দিল্লি মেট্রো চলতে শুরু করে। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানিয়েছেন পূর্বের মতোই দিল্লি মেট্রো ৫০% যাত্রী নিয়ে চলাচল করবে দিল্লি মেট্রো।

বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান গুলিকে দিল্লি সরকারের পক্ষ থেকে খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান খোলা হলেও সেখানে কোন ধরনের জমায়েত করা যাবে না। স্কুল,কলেজ,বিশ্ববিদ্যালয় সহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলি আনলক প্রক্রিয়ায় সরকারের পক্ষ থেকে এখন খোলা হবে না বলে জানান হয়েছে। এর পাশাপাশি সুইমিংপুল, ওয়াটার পার্ক গুলো সরকারের পক্ষ থেকে বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

করোনা সংক্রমণ কমে গেলেও দিল্লিতে এখনই কোন ধরনের বড় জমায়েত করা যাবে না বলে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানিয়েছেন।শনিবার দিল্লিতে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২১৩ জন যা গত তিন মাসে সর্বাধিক কম। এবং করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২৮ জন।