করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে দাঁড়াচ্ছে দিল্লি সরকার

খড়গপুর ২৪×৭: দিল্লিতে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছে ৮,৫০০। গত ১০ এপ্রিলের পর দিল্লিতে ১০,০০০ এর নিচে নামল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। সংবাদ মাধ্যমকে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিয়াল জানান দিল্লিতে পজিটিভ করোনা রোগীর সংখ্যা ১২ শতাংশ কমেছে।

গত ১০ দিনে দিল্লিতে তিন হাজার করোনা চিকিৎসার জন্য বরাদ্দ থাকা বেড খালি হয়েছে বলে দিল্লি সরকার সুত্রে খবর, যার ফলে করোনা মোকাবিলায় কিছুটা আশার আলো দেখতে শুরু করেছে দিল্লি সরকার। কেজরিয়াল জানান ২০ এপ্রিল দিল্লিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ২৮,০০০ এর বেশি এখন সেই সংখ্যা ৮৫০০ এর কাছা কাছি বলে তিন জানান।

করোনা মোকাবিলায় দিল্লির মানুষ সরকারের প্রতি যেই সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে তার জন্য তাদেরকে তিনি সরকারের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। তিনি জানান করোনা মোকাবিলায় আরও সতর্ক হতে হবে সবাইকে। বর্তমানে দিল্লিতে যেই ৮৫০০ দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা তাকে একদম নির্মূল করতে হবে এবং তার জন্য সবাইকে সতর্ক থাকার পরামর্শ তিনি দিয়েছেন।

কেজরিয়াল জানান তার সরকারের পক্ষ থেকে করোনা মোকাবিলার জন্য সব ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে। দৈনিক সংক্রমণ কমে গেলেও সরকারের পক্ষ থেকে কোনও ধরনের গাফিলতি রাখা হবে না করোনা মোকাবিলায়।

তিনি জানান হাসপাতাল গুলিতে উপযুক্ত পরিমাণের বেড, অক্সিজেন এবং আইসিইউ এর ব্যবস্থা করে রাখা হচ্ছে সরকারের পক্ষ থেকে। করোনা অতিমারীর জন্য যেই পরিবার গুলিতে একমাত্র উপার্জন করা সদস্য মারা গিয়েছেন সেই পরিবার গুলিকে আর্থিক সাহায্য দিল্লি সরকারের পক্ষ থেকে করা হবে বলে তিনি জানান।

এর সাথে তিনি আরও জানান করোনায় দিল্লির যেই সব শিশুরা তাদের মা বাবাকে হারিয়েছে তাদের পড়া শোনার খরচ দিল্লি সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হবে বলে তিনি ঘোষণা করেন।