Saturday, October 16, 2021
Homeদেশএয়ার ইন্ডিয়াকে ১৮ হাজার কোটি টাকায় কিনলো টাটা গ্রুপ

এয়ার ইন্ডিয়াকে ১৮ হাজার কোটি টাকায় কিনলো টাটা গ্রুপ

- Advertisement -

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: অনেক অর্থনৈতিক জটিলতা কাটিয়ে টাটা গ্রুপ আবার স্বমহিমায় ভারতের সবচেয়ে বেশি সাম্মানিক যোগ্য স্থান ফিরে পেলো জাতীয় অর্থনৈতিক পরিসরে, কেউ কেউ মনে করেন।

নুন থেকে সফটওয়্যার, এই বিরাট পরিধির মাত্রা ছাড়িয়ে গেলো ১৮,০০০ কোটি দিয়ে এয়ার লাইন্সের পুনর্দখল সরকারের কাছ থেকে প্রস্তাব এলো অর্ধ শতাব্দী পর। ১০০ শতাংশ শেয়ার থাকা স্বত্বেও ৫০ শতাংশ আরো নিচু স্তর থেকে আরো বাড়িয়ে যোগ হলো এয়ার ইন্ডিয়া এয়ারপোর্ট সার্ভিস প্রাইভেট লিমিটেড।

- Advertisement -

ডিআইপিএম সেক্রেটারি,তুহিন কান্ত পান্ডে জানালেন টাটার এসপিভি এই জয়ের অংশীদার। ২০২১ এর ৩১ শে আগস্ট এয়ার ইন্ডিয়ার টোটাল ধার ছিলো ৬১,৫৬২ কোটি,তার মধ্যে ১৫,৩০০ কোটি দর ডেকেছে, মি.পান্ডে আরো জানান,৪৬,২৬২ কোটি দিয়ে দেওয়া হলো এয়ার ইন্ডিয়ার অ্যাসেট হোল্ডিং লিমিটেডকে, এই এআইএএইচএল সরাসরি সরকার এসপিভি তৈরি করলো। সিভিল এভিয়েশনের সেক্রেটারি, রাজীব বনসল বলেন, যে কোনো চাকুরীজীবীকে এক বছরের মধ্যে কোনোভাবেই অন্য জায়গায় সরানো হবে না, যদি সরানো হয় এক বছর পরে,তাহলে তাকে ভিআরএস দেওয়া হবে।

গ্র্যাচুইটি, প্রভিডেন্ট ফান্ড সমস্ত কর্মরত চাকুরীজীবিদের এই সুবিধে থেকে কখনোই বঞ্চিত করা হবে না। বনসল উল্লেখ করেন আরো, বর্তমানে ১২,০৮৫ জনের মধ্যে ৮,০৮৪ জন বর্তমানে স্থায়ী,এবং ৪০০১ জন চুক্তিভিত্তিক। এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসের বর্তমানে কাজ করেন ১,৪৩৪ জন। এই মাসের শুরুতেই টাটা সন্স,এবং স্পাইস জেট চেয়ারম্যান, আর অজয় সিং শেয়ারের দর দিয়েছিলেন, গত মাসের শেষ রিপোর্ট অনুযায়ী টাটার শেয়ার শেষ দর জয় লাভের সূচনা করে,ইউনিয়ন মিনিস্টার পীযুষ গোয়েল যদিও জানান এখানেই শেষ নয়।

২০২০ র ডিসেম্বরে সরকার এয়ার ইন্ডিয়া কে আমন্ত্রণ জানায় দ্বিতীয় বারের লগ্নী জন্য । টাটা গ্রুপ  এবং অজয় সিং শেষ পর্যন্ত এগিয়ে এলেও প্রথম থেকে এই দৌড়ে চার কোম্পনি অংশগ্রহণ করে। প্রায় ৭০,০০০ কোটি এয়ার ইন্ডিয়ার ক্ষতি হলেও, প্রতিদিন সরকারের পক্ষ থেকে ২০ কোটি টাকা ক্ষতি হয়। এটাই নরেন্দ্র মোদীর সরকারের পক্ষ থেকে এয়ার ইন্ডিয়াকে দ্বিতীয় বিক্রির চেষ্টা। ২০১৮ র মার্চ মাসে এই একই আগ্রহ প্রকাশ পেলেও এয়ার ইন্ডিয়ার তরফ থেকে তেমন কোনো ভাবনা ছিলো না।

আগে থেকে অর্থনৈতিক সংকেত পাওয়া স্বত্বেও ৪,৪০০ ডোমেস্টিক,এবং ১,৮০০ আন্তর্জাতিক বিমানের বিমানবন্দরের পার্কিং জায়গা নির্দিষ্ট হলেও ৯০০ বিমানের জায়গা অন্য দেশে এয়ার ইন্ডিয়া নিয়ন্ত্রণ করে এখনো। ১৯৩২ সালে টাটা এয়ার সার্ভিস ভারতে যাত্রা শুরু করলেও পরে জেআরডি টাটা প্রতিষ্ঠা করে এয়ার ইন্ডিয়া । ১৯৫৩ তে গোটা দেশে জাতীয়তা লাভ করে , জেআরডি টাটা ১৯৭৭ সাল পর্যন্ত চেয়ারম্যান পদে থাকেন।

এয়ার ইন্ডিয়া প্রথম এশিয়ান এয়ারলাইন প্রবেশ করে জেট এয়ার ক্রাফটের সঙ্গে, ১৯৬০ থেকে নিউ ইয়র্ক থেকে প্রথম ওড়া শুরু হয়। বর্তমানে টাটা গ্রুপের সঙ্গে পার্টনারশিপে সিঙ্গাপুর এয়ার লাইন্স, এবং এয়ার এশিয়া ইন্ডিয়া ,মালয়েশিয়ার এয়ার এশিয়ার সাথে  যুক্ত হয়।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!