Saturday, October 16, 2021
Homeরাজ্যপশ্চিমবঙ্গের একাংশ থেকে বিদায় নিল মরশুমী বর্ষা

পশ্চিমবঙ্গের একাংশ থেকে বিদায় নিল মরশুমী বর্ষা

- Advertisement -

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: পশ্চিমবঙ্গের একাংশ থেকে ষষ্ঠীতে বিদায় নিল মরশুমী বর্ষা। স্বাভাবিকের চেয়ে এবারে বর্ষা বিদায়ে একটু বেশি সময় লাগলেও তা আখেরে শারদোৎসবের আবহাওয়াকে ভালো করে দিল বলে মনে করছেন আবহবিদরা।

একের পর এক নিম্নচাপের জেরে গত চার মাস ধরে যেভাবে পশ্চিমবঙ্গকে বর্ষা দেখতে হয়েছে, তা বোধহয় পুজোর মধ্যে আর দেখতে হবে না। রবিবার দেওয়া পূর্বাভাস থেকে একবারে ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে এমনটাই সোমবার জানালো আলিপুর হাওয়া অফিস। সুদূর উত্তর আন্দামান সাগরে তৈরি নিম্নচাপটি তৈরি হতে এখনো বাকি একদিন।

- Advertisement -

আশঙ্কা করা হয়েছিল, সেই নিম্নচাপটি সুগভীর নিম্নচাপে পরিণত হলো পুজোর মধ্যে পরোক্ষ প্রভাব পড়বে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে। পুজোয় বৃষ্টির সম্ভাবনা নিয়ে এমনিতেই আতঙ্কে ভুগছিল আমজনতা। আর নিজেদের দেওয়া পূর্বাভাসের পরিবর্তন করে ষষ্ঠীর দিন সুখবর শোনালো আবহাওয়া দপ্তর। নিম্নচাপ ঘণীভূত হতে দু’দিন সময় বরাদ্দ করা হয়েছিল। এবারে সেই সময় আরও দীর্ঘায়িত হলো।

পিছিয়ে গেল ওই নিম্নচাপ গভীর নিম্নচাপ হয়ে ওঠার সময়। আর এরই মধ্যে রাজ্য থেকে বর্ষা বিদায় নেওয়ায় দশমী পর্যন্ত ভারী বৃষ্টির আশঙ্কা যথেষ্ট কমেই গেল বলে মনে করা হচ্ছে। যে আশঙ্কা থেকে অষ্টমী থেকে দশমী পর্যন্ত কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি হয়েছিল, সেই পরিস্থিতি এখন আর থাকছে না। সোমবারেই বর্ষা বিদায় শুরু হয়ে যাওয়ায় সুদূর ওই নিম্নচাপের পরোক্ষ প্রভাবও তেমন বৃষ্টিপাত ঘটাতে পারবে না বলে দাবি করল আলিপুর হাওয়া অফিস।

এবছর স্বাভাবিকের থেকে ৩ দিন পর ১১ জুন রাজ্যে পৌঁছেছিল মরশুমী বর্ষা। এবারে সেই বর্ষা, নিম্নচাপকে সঙ্গী করে লাগাতার বৃষ্টি দিয়ে চলেছে। সাধারণত ১০ অক্টোবর রাজ্যের ওপর থেকে বর্ষা বিদায় নেয়। এবছর ঠিক একদিন পরেই মৌসুমী বাতাসের সেই প্রভাব থেকে মুক্ত হতে চলল গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ।

সোমবার রাজ্যের পশ্চিমের জেলাগুলির সঙ্গে মালদা ও দিনাজপুরের ওপর থেকে মৌসুমি বায়ু সরে গেছে বলে আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে। আবহাওয়া দপ্তর যে বর্ষার প্রত্যাবর্তনের যে মানচিত্র প্রকাশ করেছিল তাতে ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম, মালদহ, দক্ষিণ দিনাজপুর, উত্তর দিনাজপুরের একাংশের ওপর দিয়ে মৌসুমি বায়ুর প্রত্যাবর্তন সম্পূর্ণ হয়েছে।

রাজ্যের বাকি জেলাগুলির ওপর দিয়ে মৌসুমি বায়ুর প্রভাব মঙ্গলবার কেটে যাবে। মরশুমী বর্ষা বিদায় নেওয়াতেই দূরবর্তী নিম্নচাপের প্রভাবে আর তেমন ভুগতে হবে না পশ্চিমবঙ্গকে। আর বর্ষা বিদায় নিতেই রাজ্যের বিভিন্ন শহরে অস্বাভাবিক হারে বাড়তে শুরু করল বায়ুদূষণ। তবে, উত্তর আন্দামান সাগরে তৈরি নিম্নচাপের জেরে আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।

ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক এবং কেরালার একাধিক জেলায়। সেই সঙ্গে ঘণ্টায় সর্বাধিক ৬০ কিলোমিটার বেগে লাগাতার ঝোড়ো বাতাস বইতে পারে।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!