এক ব্যক্তি এক পদ’ নীতি মেনে! ঘোষিত হতে চলেছে তৃণমূলের নতুন জেলা সভাপতির নাম

KGP 24X7: তৃণমূলের জেলা সভাপতি বদল নিয়ে চলছে জল্পনা। আগামি সোমবার থেকে শুক্র-শনিবারের মধ্যেই তৃণমূলের তরফে মিটিং ডেকে নতুন সভাপতিদের নাম ঘোষণা হতে পারে বলে মনে করছে সংশ্লিষ্ট রাজনৈতিক মহল।

আট জেলা সভাপতি বদলের সম্ভাবনা প্রবল। তৃণমূল এখন ‘এক ব্যক্তি এক পদ’নীতিতে চলতে চাইছে। সেই নীতি মোতাবেকই এই সভাপতি-বদলের ভাবনা। এবং সূত্রের খবর, তা ঘিরে তৎপরতা এখন তুঙ্গে তৃণমূলের অন্দরে।

পাঁচ জুন তৃণমূলে একটি মিটিং হয়েছিল, তাতে ঠিক করা হয়েছিল, এবার থেকে ‘এক ব্যক্তি এক পদ’ নীতি মেনে চলবে দল। সেই মিটিংয়ে আরও ঠিক করা হয়েছিল, আগামি এক মাসের মধ্যে এ নিয়ে অদল-বদল, সংস্কার ইত্যাদি যাবতীয় কাজ সেরে ফেলতে হবে। সেই রকমই নির্দেশ ছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

সেই এক মাস শেষ হতে আর বেশি দিন বাকি নেই। ফলে সংশ্লিষ্ট রাজনৈতিক মহল মনে করছে, আগামি মাস থেকেই সম্ভবত তৃণমূলে কার্যকর হতে চলেছে এই নীতি এবং সেই নীতি প্রয়োগসংক্রান্ত চূড়ান্ত বৈঠকটিও হয়তো এই সপ্তাহেই (২৭ জুন থেকে ৩ জুলাই) হবে। পুরোটাই রাজনৈতিক মহলের জল্পনা।

ফলে, নতুন মন্ত্রিসভায় যাঁরা ঠাঁই পেয়েছেন, তাঁদের ছাড়তে হতে পারে সংশ্লিষ্ট জেলা সভাপতির পদ। সেই তালিকায় বেশ কিছু ভারী নাম রয়েছে– জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, পুলক রায়, স্বপন দেবনাথ, সৌমেন মহাপাত্র। এ ছাড়াও একাধিক গুরুত্বপূর্ণ পদে আছেন এমন ব্যক্তিকেও বেছে নিতে হবে একটি পদই। সব মিলিয়ে এরকম ৮-৯ জন পুরনো মুখের সরে যাওয়ার কথা। যাঁরা সরে গেলে সেই সব পদে অন্য মুখ আসার কথা।

অবশ্য এ বিষয়ে সরকারি ভাবে এখনও তৃণমূলের পক্ষ থেকে কিছু ঘোষণা করা হয়নি। সবটাই ৫ জুনের মিটিংয়ের বক্তব্যের নিরিখে মনে করছে সংশ্লিষ্ট রাজনৈতিক মহল।