শুভেন্দুকে তৃণমূলের পাল্টা “বাবাকে বলো”

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে এখন শুধুই ‘বাবাকে বলো’। শুভেন্দু অধিকারীকে দেখলেও বলা হবে একটাই কথা ‘বাবাকে বলো’। শুভেন্দুর বাবা শিশির অধিকারীর ছবি ও ফোন নম্বর দিয়ে বাবাকে বলো ছবি ঘুরছে তৃণমূলের বিভিন্ন গ্রুপে।

আসলে মুকুল রায়ের দলত্যাগ নিয়ে গর্জে উঠেছেন শুভেন্দু অধিকারী। আর তাই তৃণমূলের পাল্টা দাবি শিশির বাবু তো তৃণমূলের টিকিটে সাংসদ নির্বাচিত হন। তাই এখন বিজেপির সঙ্গে শিশির বাবুর ঘনিষ্ঠতা বেড়েছে। তাই শিশির বাবুও সাংসদ পদ থেকে পদত্যাগ করুন।

এ প্রসঙ্গে তৃণমূলের বিধায়ক পার্থ ভৌমিক বলেন, ‘আমাদের দল তৃণমূল লোকসভা ভোটে ১৮টি আসনে বিজেপির কাছে হেরে যাই। তারপর তৃণমূল একটি কর্মসূচি নিয়েছিল। সেই কর্মসূচি ছিল ‘দিদিকে বলো’। মানুষকে আমরা বলেছিলাম কন্যাশ্রী না পেলে দিদিক বলো। রূপশ্রী না পেলে দিদিকে বলো।

তাই আজ আমরা শুভেন্দু অধিকারীকে বলছি বাবাকে বলো। দলত্যাগ বিরোধী আইনের বিষয়ে শুভেন্দু অধিকারী তুমি বাবাকে বলো।’ এ প্রসঙ্গে শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়ায় যাঁরা এসব কাজ করছেন তা ঠিক করছেন না। এটা অত্যন্ত নিম্নরুচির কাজ। এই কাজে যাঁরা যুক্ত মানুষ তাদের গায়ে থুতু দেবে। এই কাজ থেকেই তৃণমূলের নিম্নরুচির পরিচয় পাওয়া যাচ্ছে।’