Sunday, September 19, 2021
Homeরাজ্য'২ পয়সার সাংবাদিক মন্তব্যে! আচরণ নিয়ে একাধিক অভিযোগে,নদীয়ার দায়িত্ব থেকে সরানো হলো...

‘২ পয়সার সাংবাদিক মন্তব্যে! আচরণ নিয়ে একাধিক অভিযোগে,নদীয়ার দায়িত্ব থেকে সরানো হলো মহুয়া মৈত্রকে

- Advertisement -

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: ট্যুইটে ক্ষুরধার হিসেবে পরিচিত। জবাব দিতে ছাড়েননি রাজ্যপাল সহ কোনো রাজনীতিবিদকেই।

এক সময় ঘরোয়া আলোচনায় সকলে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছিল তার আচরণ নিয়ে। সেই মহুয়া মৈত্রকেই এবার সভাপতির পদ থেকে সরালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার পরিবর্তে কৃষ্ণনগরের নতুন সভাপতি করা হল জয়ন্ত সাহাকে।

- Advertisement -

উল্লেখ্য, ১৯-এর লোকসভা ভোটের পর নদীয়া জেলাকে কৃষ্ণনগর ও রানাঘাট, এই দুটি সাংগঠনিক ভাগে ভাগ করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যার মধ্যে কৃষ্ণনগরের দায়িত্ব দিয়েছিলেন কৃষ্ণনগরেরই সাংসদ মহুয়া মৈত্র কে ও রানাঘাটের দায়িত্ব দিয়েছিলেন প্রাক্তন কংগ্রেস নেতা শংকর সিংহকে।

 

তবে বিধানসভা নির্বাচন মেটার পরই দলীয় সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিয়েছিলেন, তৃণমূলে ‘এক ব্যক্তি, এক পদ’ নীতি কার্যকর হতে চলেছে। ফলে বহু তাবড় তাবড় মন্ত্রী ও সাংসদ সাংগঠনিক পদ হারাতে পারেন, এমন সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল। বাস্তবে হলোও তাই। সোমবার জেলা সভাপতির পদ হারালেন অনেকেই।

 

রাজনৈতিক মহলের একাংশ মনে করছেন , মহুয়ার আচরণই এখানে পথের কাটা হয়ে দাঁড়ালো। ভোটের আগে জেলা স্তরে এক বৈঠকে গিয়ে সাংবাদিকদের সম্পর্কে কটাক্ষ করে মহুয়া মৈত্র বলেছিলেন, ‘দু পয়সার সাংবাদিক’। যা ভালোভাবে নেয়নি তৃণমূলের একাংশ। যার নালিশ পৌঁছেছিল কালীঘাটেও।

 

তৃনমুল সূত্রে খবর, শুধু মহুয়া মৈত্র বা শংকর সিংহ নয়, সংগঠনের খোলনলচে বদলে ফেলায় জেলা সংগঠন থেকে বাদ গিয়েছেন জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, সৌমেন মহাপাত্র, পুলক রায়, অরূপ রায়, দিলীপ যাদব, বেচারাম মান্না, পার্থপ্রতিম রায় (কোচবিহার), অখিল গিরি, মৌসম নুর, আবু তাহের, শুভাশিস চক্রবর্তী-সহ আরও অনেকে।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!