Saturday, August 13, 2022
Homeজেলাবাঁকুড়াস্বামী-সন্তানকে ছেড়ে গাড়ি চালককে বিয়ে করল শালতোড়ার বিজেপি বিধায়ক চন্দনা বাউরি
Advertisement

স্বামী-সন্তানকে ছেড়ে গাড়ি চালককে বিয়ে করল শালতোড়ার বিজেপি বিধায়ক চন্দনা বাউরি

Advertisement

Advertisement

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: স্বামীকে ছেড়ে মন্দিরে গিয়ে নিজের গাড়ির চালককে বিয়ে করেছেন শালতোড়ার বিজেপি বিধায়ক। এমন গুঞ্জনে তোলপাড় হল বাঁকুড়া। যদিও সবটাই বিরোধীদের কুৎসা বলে, ওই অভিযোগ উড়িয়ে দিলেন বিধায়ক চন্দনা বাউরী।

- Advertisement -
Advertisement
- Advertisement -

অভিযোগ ওঠে গতকাল বাঁকুড়ার গঙ্গাজলঘাটি থানা এলাকার এক মন্দিরে বিয়ে করে নিরাপত্তা চেয়ে গঙ্গাজলঘাটি থানায় হাজির হন চন্দনা বাউরী ও গাড়ির চালক তথা বিজেপি কর্মী কৃষ্ণ কুন্ডু। আজ সকালে তাঁর ব্যাক্তিগত নিরাপত্তারক্ষীরা থানায় পৌঁছালে গাড়িতে চড়ে নিজের শ্বশুর বাড়িতে ফিরে যান বিধায়ক।

পরে সেখান থেকে ফেসবুক লাইভ করে বিধায়ক চন্দনা বাউরী বলেন সব অভিযোগ মিথ্যা। তাঁর বিরুদ্ধে কুৎসা রটানোর উদ্যেশ্যেই এই অপপ্রচার করা হয়েছে। বিধায়কের দাবি পারিবারিক সমস্যা মেটাতেই তিনি থানায় গিয়েছিলেন।

 

 

শালতোড়ার বিজেপি বিধায়ক চন্দনা বিবাহিত। তাঁর একটি সন্তানও রয়েছে। গাড়ি চালকের স্ত্রী রুম্পা চন্দনা বাউরী ও কৃষ্ণের নামে অভিযোগ করেছেন গঙ্গাজলঘাটি থানায়। ওই জল্পনা নিয়ে চন্দনা বলেন, আমাদের একটি পারিবারিক সমস্যা ছিল। তা নিয়েই থানায় এসেছিলাম।

তার পরেই এই জল্পনার তৈরি হয়। সবটাই বিরোধীদের চক্রান্ত। আগেই আমার নামে কুত্সা করে পোস্টার দেওয়া হয়েছিল। অন্যদিকে, কৃষ্ণ কুন্ডুর স্ত্রী বলেন, চন্দনা আমাদের বাড়ি আসতো। আমরা ওদের বাড়িতে যেতাম। কিন্তু বিয়ে করেছে কাল জানতে পারলাম। ওর ভাই আমাকে ফোন করেছিল।

এদিকে ঘটনা জানার পর আজ সকালে গঙ্গাজলঘাটি থানায় হাজির হন কৃষ্ণ কুন্ডুর স্ত্রী রূম্পা কুন্ডু। তিনি থানায় হাজির হয়ে নিজের স্বামী কৃষ্ণ কুন্ডু ও বিধায়ক চন্দনা বাউরীর বিরুদ্ধে বেআইনী ভাবে বিয়ে করার অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিস সেই লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা রুজু করেছে।

Advertisement

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!