Sunday, September 19, 2021
Homeজেলাবীরভূমবীরভূমে ধৃত JBM জঙ্গি, উদ্ধার ল্যাপটপ স্মার্টফোন ও পেনড্রাইভ, এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য।

বীরভূমে ধৃত JBM জঙ্গি, উদ্ধার ল্যাপটপ স্মার্টফোন ও পেনড্রাইভ, এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য।

- Advertisement -

নিজস্ব সংবাদদাতা,বীরভূম:- বীরভূমে ধৃত JBM জঙ্গি, উদ্ধার ল্যাপটপ স্মার্টফোন ও পেনড্রাইভ, এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য।
বীরভূমে ফের গ্রেফতার জেএমবি জঙ্গী, এলাকার মধ্যে ছড়ালো ব্যপক চাঞ্চল্য। জানা গিয়েছে, বীরভূম এর পাইকর থানার কাশিমবাজার এলাকা থেকে নাজিবুল্লা নামে এক ব্যাক্তিকে গ্রেফতার করে কলকাতা STF..গতকাল মধ্য রাত্রে ধৃতের বাড়িতে হানা STF কর্মীরা। সেখানেই, ধৃতের কাছ থেকে পাসপোর্ট, ল্যাপটপ সহ বিভিন্ন নথি উদ্ধার করা হয়। পরে নাজিবুল্লা কে ধরে কলকাতা নিয়ে যাওয়া হয়।

গ্রামের প্রায় ৫০ বছর বয়সী নাজিবুল্লা, গ্রামের অনান্য মানুষের মানুষের মতো সাধারন মানুষ একজন জঙ্গী বিশ্বাসই করতে পারছে না এলাকার মানুষ। ধৃতের পরিবারের তরফে জানা গিয়েছে যে, প্রথমে একটি ছোট চায়ের দোকান ছিলো নাজিবুল্লার, পরে গ্রামেই একটি ছাপাখানার দোকান খুলে ব্যাবসা করতেন তিনি, সাথেই এলাকায় হাতুড়ে আয়ুরবেদিক ডাক্তার হীসাবে কাজ করতেন। ধৃতের ভাই সামিম আখতার জানান, আমরা গতকাল রাত্রে বিষয়টি জানতে পারি। পুলিশ কর্মীরা এসে দাদা কে নিয়ে যায়। বাড়িতে মোবাইল গুলি নিয়ে যায়। ধৃতের ছেলে সিবরাতুল্লা অবশ্য দাবী করেন, তার বাবা কে মিথ্যা ভাবে ফাঁসানো হচ্ছে। তার দাবী, তার বাবা নাজিবুল্লা একালায় একটি ছাপাখানা চালাতো, আর সাথে মুরারই এ আয়ুরবেদিক ডাক্তার হীসাবে চেম্বার করতো। এছাড়া, বাইরে কোথাও সেভাবে যোগাযোগ ছিলোনা। এমনকি, কনো সেভাবে বাইরে যাতায়েত ছিলোনা। শুধুমাত্র, রামপুরহাট এ যাতায়েত করতো। তাই তার ছেলে দাবি করছেন, সঠিক ভাবে তদন্ত করা হক ঘটনার।
আবার ধৃতের প্রতিবেশী মহম্মদ সেকেন্দার বলেন, আমরা কিছুই যানতাম না। গ্রামের একজন সাধারন মানুষ কাজ করে নিজের সংসার চালাতো। সেখানে কিভাবে এই ঘটনা ঘটলো বুঝতেই পারছি না। পরিবার এর পাশাপাশি এলাকার মানুষও চাইছেন যে ঘটনার সঠিক তদন্ত হক।
অন্যদিকে, STF সুত্রে দাবী করা হয়েছে যে ফেসবুকে একটি সাকিব আলি নামে একটি ফেক ফেসবুক একাউন্ট খুলে ধর্মালম্বী প্রচার চালাতো৷। এমনকি, খাগড়াগড় কান্ডেও নাম জড়িয়েছিলো এই নাজিবুল্লার। আর এইসবের মাঝেই জঙ্গী সন্দেহে গ্রেফতার হওয়াই এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!