দুবরাজপুরে বোমা বাঁধতে গিয়ে দুর্ঘটনা, বিস্ফোরণে উড়ে গেল এক ব্যক্তির হাত

খড়গপুর ২৪×৭: ভোটের আগেই বোমা বাঁধতে গিয়ে হাত উড়ে গেল এক ব্যক্তির। রক্তাক্ত ক্ষত বিক্ষত অবস্থায় ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে ভর্তি করা হয়েছে হাসপাতালে। প্রাথমিক অনুমান, বোমা বাঁধতে গিয়েই এই ঘটনা ঘটেছে। দুবরাজপুর বিধানসভার আমুড়ি গ্রামের এই ঘটনায় ছড়িয়েছে চাঞ্চল্য।

জানা গেছে, জখম ব্যক্তির নাম শেখ ইয়াসিন। এদিন সকালে গ্রামের বাইরে একটি ইঁট ভাটার পাশে উড়ে  যাওয়া দু হাত নিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় ইয়াসিনকে পড়ে থাকতে দেখেন গ্রামবাসীরা। তারা পরিবারকে খবর দেয়। পরিবারের তরফ থেকেই জানানো হয় পুলিশকে।

আহত ব্যক্তির আত্মীয় সৈহদ ইব্রাহিম জানান, ‘ইয়াসিনের স্ত্রী অর্থাৎ আমার বোন জানায় যে গতকাল রাতে সহিম, সুকুর আর কয়েকজন অজ্ঞাত পরিচয় ওকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। তারপরেই আজ সকালে ইয়াসিনকে ওই অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।’ আহত ব্যক্তি কোন রাজনৈতিক দল করেন না বলেও দাবি করেছেন তার পরিবারের সদস্যরা।

পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে চাষের কাজ এবং সাইকেল করে গ্রামে গ্রামে কয়লা বিক্রির ব্যবসা করতেন শেখ ইয়াসিন। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, অজয় নদীর তীরে গতকাল রাতে সম্ভবত বোমা বাঁধছিল দুষ্কৃতীরা সেই সময় বিস্ফোরণে এই ব্যক্তির দুটো হাত উড়ে যায়।

তার সঙ্গীরা তাকে গ্রামেরই ইট ভাটার পাশে ফেলে রেখে গেছে বলে অনুমান করা হচ্ছে। ঘটনা তদন্ত শুরু করেছে দুবরাজপুর থানার পুলিশ। তবে কি কারণে এই বোমা বাঁধার কাজ চলছিল তা এখনও খোলসা হয় নি।