Thursday, September 23, 2021
Homeজেলাদক্ষিণ দিনাজপুরকাজ হারিয়ে,ঋণের দায়ে কীটনাশক খেয়ে আত্মঘাতী দম্পতি

কাজ হারিয়ে,ঋণের দায়ে কীটনাশক খেয়ে আত্মঘাতী দম্পতি

- Advertisement -

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: লকডাউনের কাজ হারিয়ে ও ঋণের দায়ে কীটনাশক খেয়ে আত্মঘাতী হলো এক দম্পতি। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার কুশমণ্ডি ব্লকের বাদবিঘোর গ্রামে।

খবর পেয়ে কুশমণ্ডি থানার পুলিশ দেহদু’টি উদ্ধার করে নিয়ে যায়। ঘটনায় শোকের আবহ তৈরি হয়েছে গ্রামে। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মৃত দম্পতির নাম সত্যেন সরকার (৬০) ও তুফানী সরকার (৫৪)। সত্যেন সরকার পেশায় ছোট পান ব্যবসায়ী। স্বামী, স্ত্রী ও দুই মেয়েকে নিয়ে পরিবার। অবশ্য মেয়েদের বিয়ে হয়েছে বেশ কিছুদিন আগেই। স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, মেয়েদের বিয়ে দেওয়ার পর একরকম সর্বস্বান্ত হয়ে পড়েছিল ওই দম্পতি।

- Advertisement -

এদিকে গত দেড় বছর ধরে লকডাউনে কোনও আয় হচ্ছিল না। বিকল্প কোন কাজও পাননি সত্যেন সরকার। অনেক চেষ্টা করেও পঞ্চায়েত থেকে কোনও সাহায্য পায়নি বলে জানান আত্মীয়রা। বাধ্য হয়ে সংসার চালাতে ব্যাঙ্ক থেকে ঋণ নিয়েছিলেন বলে জানান তাঁর এক আত্মীয়। কিন্তু কোনও বেচাকেনা নেই দোকানে, আয় কোথায়? তাই ঋণ নেওয়ার পর সেই টাকা শোধ করতে পারছিলেন না বলে ওই দম্পতি মানসিক অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েছিল বলে জানালেন প্রতিবেশীরা।

মানসিক অবসাদ থেকে কীটনাশক খেয়ে আত্মঘাতী বলেই ধারণা প্রতিবেশীদের। সোমবার সন্ধ্যায় এই ঘটনার জেরে মুহূর্তে শোরগোল পড়ে যায় কুশমণ্ডি ব্লকের মালিগাঁও গ্রাম পঞ্চায়েতের বাদবিঘোর গ্রামে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে কুশমণ্ডি থানার পুলিশ।

দম্পতিকে কুশমণ্ডি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা প্রাথমিক পরীক্ষার পর মৃত বলে ঘোষণা করেন দু’জনকেই। কুশমণ্ডি থানার পুলিশ দেহ দু’টি উদ্ধার করে সোমবার বালুরঘাট হাসপাতালে নিয়ে আসে ময়নাতদন্তের জন্য। পাশাপাশি ওই দম্পতির মৃত্যুর প্রকৃত কারণ কী তার তদন্তও শুরু করেছে পুলিশ।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!