বর্ধমান-হুগলি বজ্রপাতে মৃত্যু ছয় জনের

KHARAGPUR 24X7: একই দিনে দুই জেলায় বজ্রপাতে মৃত্যু হল ৬ জনের। বর্ধমানের জামালপুরে প্রাণ হারালেন ৪ জন। অন্যদিকে, হুগলির ধনেখালিতে বজ্রপাতে প্রাণ হারালেন ২ জন।

জামালপুরে মৃত ওই ৪ জন হলেন রঞ্জিত গোয়ালা(৪০), অরূপ বাগ, শম্ভুচরণ দাস(৫২) ও অধীর মালিক(৪৯)। আহত হয়েছেন মনু আইরি নামে অন্য একজন।

জামালপুর থানার গুড়েঘর গ্রামে বাড়ি রঞ্জিতের এবং অরূপের বাড়ি কাঁশরা গ্রামে। মৃত শম্ভুচরণের বাড়ি জ্যোৎশ্রীরাম গ্রামে এবং অধীরের বাড়ি  মুহুন্দর গ্রামে । বজ্রপাতে জখম মনু আইরি সম্পর্কে রঞ্জিত গোয়ালার শ্যালক। বাড়ি কালনা মহকুমার তিলডাঙ্গা গ্রামে। ময়নাতদন্তে পাঠানোর জন্যে পুলিস মৃতদেহগুলি উদ্ধার করেছে । জখম ব্যক্তি জামালপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

মৃত ও জখমরা সকলেই কৃষিজীবি পরিবারের সদস্য । মৃত রঞ্জিত গোয়ালার ছেলে অভিজিৎ গোয়ালা জানিয়েছেন ,তাঁর মামা মনু আইরি তাঁদের বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন । এদিন দুপুরে তাঁর বাবার সঙ্গে তাঁর মামাও তাঁদের  ঝিঙে জমি পরিচর্যা করতে যায়। তখন হঠাৎই প্রবল ঝড়বৃষ্টি ও বজ্রপাত শুরু হয়।  বজ্রপাতে তাঁরা দু’জনেই জখম হয় । অভিজিৎ বলেন দু’জনকে উদ্ধার করে জামালপুর হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে চিকিৎসক তাঁর বাবাকে মৃত ঘোষণা করেন। জখম অবস্থায় তাঁর মামা সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

অপরদিকে মৃত অরূপ বাগের দাদা রুদ্রকান্ত বাগ জানিয়েছেন,তার ভাই ও ভাইয়ের স্ত্রী কাঁশরা গ্রামে জমিতে তিলগাছ কাটতে যায় । জমিতে কাজ করার সময়ে বজ্রপাতে ভাই  অরূপ মারা যায় ।বরাত জোরে রক্ষা পেয়ে যান ভাইয়ের স্ত্রী। জ্যোৎশ্রীরাম গ্রামের বাসিন্দা  অচিন্ত দাস বলেন এদিন তাঁর কাকা শম্ভুচরণ দাস  দুপুরে গ্রামের মাঠে পটল জমি পরিচর্যা করছিলেন ।  বজ্রপাতে তিনি জমিতে লুটিয়ে পড়েন।

অন্যদিকে, ধনেখালিতে বজ্রপাতে মৃত্যু হয় ২ জনের। আহত ২। মৃত দুজনের নাম মনসুর মন্ডল (৫২)। বাড়ি ধনেখালির ভাস্তারা এলাকায়। শেখ আমিনুর (২১)। বাড়ি পুঁইনানে। এছাড়াও দুজন এই ঘটনায় আহত হয়েছেন।