ট্রেনের সামনে পড়ে পা কাটা গেল অজ্ঞাতপরিচয় মহিলার, তীব্র চাঞ্চল্য বৈদ্যবাটিতে

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: ট্রেনের সামনে পড়ে পা কাটা পড়ল অজ্ঞাতপরিচয় মহিলার। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন শুক্রবার দুপুরে বৈদ্যবাটি স্টেশনের ডাউন লাইনের ২ নং প্লাটফর্ম থেকে আপ লাইনের দিকের তিন নং প্লাটফর্মের দিকে যাওয়ার সময় হুমড়ি খেয়ে পড়ে যান মাঝবয়সী মহিলা তখই ডাউন লাইনে আসা ট্রেনের চাকায় মহিলার পা কাটা পড়ে।

ঘটনার পরেই স্থানীয়রা গুরুতর আহত মহিলাকে লাইন থেকে তুলে প্লাটফর্মে শুইয়ে দেয়। পরে জিআরপি আসে  অ্যাম্বুলেন্স আসতে কিছুটা দেরী হয়। তবে  অ্যাম্বুলেন্স আসার পর মহিলাকে হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। জিআরপির অনুমান আত্মহত্যা করার উদ্দেশ্যেই মহিলা এই স্টেশনে এসেছিলেন।

যদিও স্থানীয়রা জানিয়েছেন ঝুঁকি নিয়ে পারাপার করতে গিয়েই দূর্ঘটনা হয়েছে। বিশেষ সূত্রে জানা গিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ ও সরকারকে জানানো সত্ত্বেও স্টেশনগুলিতে জরুরি ভিত্তিতে অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা চালু হয়নি। অন্যদিকে মফঃস্বলের স্টেশনগুলিতে এরকম অ্যাক্সিডেন্ট প্রায় হয়ে থাকে। বিশেষ করে বৈদ্যবাটি, শ্রীরামপুর, শেওড়াফুলি স্টেশনে প্রতি নিয়ত ঝুঁকি নিয়ে পারাপার করেন।

এদিন প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে কিভাবে লাইন পারাপারের কথা ভাবলেন ওই মহিলা ভাবাচ্ছে স্থানীয়দের। জিআরপি সূত্রে জানা গেছে ওই মহিলার অবস্থা আশঙ্কাজনক। কোভিড পরিস্থিতিতে অ্যাম্বুলেন্স পেতে সমস্যা হয়। অনেকক্ষেত্রেই দেখা যায় অ্যাম্বুলেন্স দেরিতে আসছে। গুরুতর আহতদের প্রয়োজনে অ্যাম্বুলেন্স মেলেনা বলেই অনেকসময়েই রোগীকে বাঁচানো যায়না।