Monday, September 27, 2021
Homeজেলাহাওড়ামুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ অমান্য করে" লকডাউনের মধ্যে চলল তৃণমূলের বিজয় মিছিল

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ অমান্য করে” লকডাউনের মধ্যে চলল তৃণমূলের বিজয় মিছিল

- Advertisement -

খড়গপুর ২৪×৭: এখনই বিজয় মিছিল নয়। কোভিড পরিস্থিতি কাটার পর ব্রিগেডে সভা করবে তৃণমূল । বিরাট জয়ের পর দলীয় কর্মীদের নির্দেশ দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দলনেত্রীর নির্দেশ অমান্য করে রবিবার বিজয়োল্লাসে মাতলেন তৃণমূল কর্মীরা।

রবিবার ঘটনাটি ঘটেছে হাওড়ার জগৎবল্লভপুরের গোবিন্দপুর পশ্চিম পাড়ায়। খেলা হবে বাজিয়ে নাচ-গান করলেন শাসক দলের কর্মীরা। সব দেখেও পুলিস ব্যবস্থা নেয়নি বলে অভিযোগ বিজেপির।
গত ২ মে বিধানসভা নির্বাচনের ফলপ্রকাশের পর দলকে বিজয় উৎসব উদযাপন করা থেকে দলকে বিরত করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ।

- Advertisement -

তারপর থেকে সংযত থেকেছে তৃণমূল। গতকাল, শনিবার রাজ্যজুড়ে ৩০ মে পর্যন্ত কার্যত লকডাউন ঘোষণা করেছে নবান্ন। কিন্তু সেই বিধিনিষেধ অগ্রাহ্য করে বিজয় উৎসবে সামিল হন জগৎবল্লভপুরের গোবিন্দপুর পশ্চিমপাড়ার তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা। ‘খেলা হবে’ গানের তালে নাচার সঙ্গে আতসবাজিও ফাটিয়েছেন তাঁরা। অধিকাংশ তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীর মুখেই ছিল না মাস্ক।

খবর সংগ্রহে গেলে সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের হেনস্থার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। শাসক দলের স্থানীয় নেতা মুস্তাক আলি জানিয়েছেন, কর্মীদের চাপে দলীয় অফিসে সামনে ১ ঘন্টার বিজয় উৎসব পালন করা হয়েছে। ওঁরা আবেগ ধরে রাখতে পারেননি। করোনা আবহে এহেন নাচ-গানের আয়োজনের নিন্দা করেছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতারা। তবে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি বিরোধী দল বিজেপি।

হাওড়া সদরের সভাপতি সুরজিৎ সাহা বলেন,”যেভাবে জমায়েত হয়েছে তাতে করোনা সংক্রমণ বাড়লে দায় শাসক দলের। লকডাউনের বিধি ভাঙলেও কোনও ব্যবস্থাই নেয়নি পুলিস। অথচ বিজেপি কর্মীদের ঘরে ফেরার দাবিতে থানায় ধরনা দিলে মহামারি আইনে মামলা করছে তারা। এই দ্বিচারিতা কেন!

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!