চিতাবাঘের হামলায় জখম এক বনকর্মী-সহ ৫ গ্রামবাসী

খড়গপুর ২৪×৭: মালবাজার মহকুমার নাগরাকাটা ব্লকের এক গ্রামে চিতাবাঘের হামলায় জখম হলেন পাঁচজন। জখমদের সুলকাপাড়া হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।
মঙ্গলবার সকালে মালবাজার মহকুমার নাগরাকাটা ব্লকের সুলকাপাড়ার খয়েরবাড়ি গ্রামে চিতাবাঘের হামলায় জখম হলেন এক প্রাক্তন বনকর্মী-সহ পাঁচ গ্রামবাসী।

জখমদের সুলকাপাড়া হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তার মধ্যে পাসোয়ান তামাং নামে প্রাক্তন বনকর্মীকে গুরুতর জখম অবস্থায় মাল সুপারস্পেশালিটি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
জানা গিয়েছে, এদিন সকালে ওই গ্রামে একটি চিতাবাঘ ঢুকে প্রথমেই তিনটি ছাগলকে মেরে ফেলে। গ্রামবাসীরা প্রথমে বুঝতে পারেননি কী ঘটছে।

পরে কী হয়েছে দেখতে এগিয়ে যান বিজয় ওঁরাও, লুতফর রহমান, রাকেশ সোনার, জীবন সোনার ও পাসোয়ান তামাং নামের পাঁচ গ্রামবাসী। তখনই চিতাবাঘটি এঁদের আক্রমণ করে। পরে চিতাবাঘটি গ্রামেই একটি ঝোপে লুকিয়ে পড়ে।
খবর পেয়ে খুনিয়া ও ডায়না রেঞ্জের বনকর্মীরা ঘটনাস্থলে চলে আসেন।

জখমদের উদ্ধার করে তাঁদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বনকর্মীরা অনেক চেষ্টা করে ঘুমপাড়ানি গুলি করে কাবু করেন চিতাটিকে। এরপর চিতাবাঘটিকে উদ্ধার করে লাটাগুড়ি এনআইসি-তে নিয়ে যান বনকর্মীরা। সেখানে চিকিৎসা হবে চিতাবাঘটির। পুরো ঘটনায় গ্রামে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।