স্বামীর বিবাহ-বর্হিভূত সম্পর্কের প্রতিবাদ করায়, স্ত্রীর যৌনাঙ্গে খৈনি ঢুকিয়ে মারধরের অভিযোগ

খড়গপুর ২৪×৭: বিবাহ-বর্হিভূত সম্পর্কের নির্মম পরিণতি। দ্বিতীয় বিয়েতে আপত্তি তোলায় রাতভর স্ত্রীকে উলঙ্গ করে মারধর, এমনকী যৌনাঙ্গে খৈনি ঢুকিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল স্বামীর বিরুদ্ধে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে জলপাইগুড়ির ময়নাগুড়িতে। অভিযুক্ত পলাতক।

ময়নাগুড়ির আমগুড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের ধাই-ধাই ঘাট এলাকার বাসিন্দা বীরেন তফাদার। একজন নয়, বিভিন্ন এলাকার একাধিক মহিলার সঙ্গে তিনি বিবাহ-বর্হিভূত সম্পর্কে লিপ্ত ছিলেন বলে অভিযোগ। কিন্তু এবার আর শেষরক্ষা হল না! তারই মাশুল গুনতে হল স্ত্রীকে।

স্ত্রী রুনু তফাদারের দাবি, সম্প্রতি ফের এক মহিলার সঙ্গে বিবাহ-বর্হিভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন বীরেন। ঘটনাটি জানাজানি হতেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন স্থানীয় বাসিন্দারা। রীতিমতো চড়াও হয়ে বীরেনকে মারধর করেন তাঁরা। এমনকী, দু’জনের বিয়েও দিয়ে দেন। কিন্তু ওই মহিলাকে যখন বাড়িতে আনার চেষ্টা করেন, তখন আপত্তি তোলেন রুনু।

অভিযোগ, মঙ্গলবার দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত ঘরে আটকে রেখে স্ত্রীকে পৈশাচিক অত্যাচার চালান বীরেন। উলঙ্গ করে মারধরই শুধু নয়, যৌনাঙ্গে খৈনির পাতাও ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। তারপর? এদিন সকালে স্বামী প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘর থেকে বেরোলে, কোনওমতে জানলা দিয়ে পালান রুনু। ময়নাগুড়ি থানায় অভিযোগও দায়ের করেছেন তিনি। তবে অভিযুক্ত পলাতক।