দাদার মৃত্যু শোকে আত্মঘাতী ভাই

খড়গপুর ২৪×৭: দাদার মৃত্যু সংবাদ পেয়ে আত্মঘাতী ভাই। একই দিনে মৃত্যু দুই ভাইয়ের। এই ঘটনায় শোকের ছায়া মালবাজার মহকুমার ওদলাবাড়ি হিন্দি স্কুল এলাকায়।

মৃতের কাকা নফসর আলি বলেন বড় ভাইপো  অসুস্থ অবস্থায় থেকে ট্রেনে নিউজলপাইগুড়ি রেল স্টেশনে আসছিলেন। কিন্তু ট্রেনে বাড়ি ফেরার সময় রাস্তায় ট্রেনের মধ্যেই বড় ভাইপো মহম্মদ মোক্তার মারা যান। এরপর খড়গপুর রেল স্টেশনে ট্রেন থেকে নামিয়ে রাখা হয় ভাইপোর  মৃতদেহ। খবর ওদলাবাড়ির বাড়িতে জানাজানি হতেই কান্নায় ভেঙে পড়েন সবাই।

এই খবর শুনে আমার ভাইপো মৃত মহম্মদ মোক্তারের ছোট ভাই মহম্মদ আনোয়ার(২৭) বাড়ির পাশে রেল লাইনে আত্মহত্যা করে। একই পরিবারের দুই ছেলে এই ভাবে মৃত্যু হওয়ায় গোটা গ্রামে শোকেরা ছায়া। তিনি আরো বলেন, আমরা জানতে পেরেছি শনিবার দুপুর আড়াই টা নাগাদ, ডেমো চ্যাংড়াবান্ধা ডাউনের ধাক্কায় মৃত্যু হয়েছে ছোট ভাইপোর। এ বিষয়ে আমরা মালবাজার রেল পুলিশ এবং মালবাজার থানায় জানিয়েছি।

এদিকে প্রায় দেড় ঘন্টা মৃতদেহ রেল লাইনে পড়ে থাকার পর ওই লাইনে আবার অন্য ট্রেন চলে আসে বলে অভিযোগ করেন স্থানীয় বাসিন্দা ফিরোজ খান। তিনি বলেন, মৃতদেহ উদ্ধার হলো না, তারপরও ওই লাইনে ট্রেন চলে আসায় আমরা রেল কর্মীদের বলে রেল লাইনে লাল কাপড় লাগিয়ে ট্রেন চলাচল বন্ধ করি।

তিনি আরো বলেন, এরকম মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে যাবার পর মৃতদেহ বেশ কিছুক্ষণ রেল লাইনে পড়ে থাকলো অথচ যে ট্রেনকে আটকানো হলো সেই ট্রেনের চালক বলছে তার কাছে কোনও খবরই ছিলো না। তবে পরে রেলের পুলিশ এবং মালবাজার থানার পুলিশ এসে মৃত দেহ উদ্ধারের চেষ্টা করছে। এই ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে এলাকায়।