তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ, উত্তপ্ত কোচবিহারের শীতলকুচি

খড়গপুর ২৪×৭: শহরের রাত পোহালেই চতুর্থ দফার ভোট। তার আগেই তৃণমূল- বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল শীতলকুচি বিধানসভার উত্তর নলগ্রাম এলাকা। ঘটনার সূত্রপাত শুক্রবার দুপুরে। তৃণমূল এবং বিজেপি দুই পক্ষর মধ্যে ধস্তাধস্তি তৈরি হয়। সকাল থেকেই দুপক্ষ একে অপরকে হুমকি দিচ্ছিল। এরপরই রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে এলাকা।

বাঁশ, লাঠি ব্যবহার করে শুরু হয় মারপিঠ। তৃণমূল এবং বিজিপির মোট ১২ জন আহত হয়েছেন। হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তাদের। চিকিৎসা চলছে সকলের। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় শীতলকুচি থানার পুলিশ। অভিযোগ  নির্বাচন কমিশনের কাউকেই এলাকায় খুঁজে পাওয়া যায়নি।

তৃণমূল কর্মী আবু তালেব মিঞা জানান, ‘আমরা রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলাম। অতর্কিতভাবে বিজেপি বাহিনি এসে আমাদের উপর আক্রমন করে। আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়। এই ঘটনার পরেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা।’ অভিযোগ এরপরেই তৃণমূল কর্মীরা বিজেপির উপর আক্রমণ করে । সেখানে আহত হয় বিজেপির চারজন কর্মী। হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন তাঁরাও।

আহত বিজেপি কর্মী অধীর রায়ের কন্যা জানান- ‘তৃণমূল কর্মীরা বিজেপি কর্মীদের উপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে আক্রম করে। তাঁর বাবা অধীর রায়ের পাশাপাশি, অমিতা বর্মন, ভারতী বর্মন এবং বাপি বর্মন গুরুতরভাবে আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছেন।’ এই ঘটনায় শীতলকুচি এলাকা জুড়ে বিধানসভা নির্বাচনের আগের দিন রাজনৈতিক উত্তাপ চরমে উঠে।