Sunday, December 5, 2021
Homeজেলাপশ্চিম মেদিনীপুরখড়গপুরে রাজ্য পুলিশের ট্রেনিং ক্যাম্প থেকে গুলি ছিটকে আহত স্কুল ছাত্রী
Advertisement

খড়গপুরে রাজ্য পুলিশের ট্রেনিং ক্যাম্প থেকে গুলি ছিটকে আহত স্কুল ছাত্রী

Advertisement

Advertisement

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: ফায়ারিং অনুশীলন করার সময় পুলিশের ছোঁড়া গুলিতে জখম হল দুই কিমি দূরে অবস্থিত লোকালয়ের এক বিদ্যালয় ছাত্রী। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার দুপুরে খড়গপুর গ্ৰামীণ থানার হরিয়াতাড়া গ্ৰাম পঞ্চায়েতের টাঙ্গাশোল এলাকায়।

- Advertisement -
Advertisement
- Advertisement -

পুলিশ জানিয়েছে জখম ছাত্রীর নাম সন্ধ্যা ওরফে পূজা মাহাতো(১৫)। পুলিশের ছোঁড়া গুলিতে এই ছাত্রীর ডানদিকের কাঁধে চোট লেগেছে। ঘটনার পর গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তাকে প্রথমে খড়গপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে সেখান থেকে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। এইদিন রাতেই এই ছাত্রীর গুলি বের করা হয়েছে।

বর্তমানে সে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। ঘটনার পর গোটা এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে। তাঁদের অভিযোগ এই ঘটনা নতুন কিছু নয়। আগেও এইভাবে পুলিশের প্রশিক্ষণের সময় ছোঁড়া গুলিতে জখম হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি নিয়ে বহুবার প্রশাসনের কাছে বলা হয়েছে।

কিন্তু কোনও লাভ হয় নি বলে তাঁরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এই টাঙ্গাশোল এলাকার বাসিন্দা জগদীশ মাহাতো বলেছেন ” আমরা খুব আতঙ্কে রয়েছি। এখানে জীবনের কোনও ভরসা নেই আমাদের। যে কোনও সময় কেউ যেতে পারে। আগেও এরকমভাবে তিনজন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

তারমধ্যে একজন অন্তঃসত্ত্বা মহিলা ছিলেন। তাঁর পায়ে গুলি লেগেছিল।” এদিকে ঘটনার পর এইদিন বিকালে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খড়গপুর) রানা মুখোপাধ্যায়, খড়গপুর মহকুমা পুলিশ আধিকারিক দীপক সরকার এলাকায় যান। জানা গিয়েছে সেখান থেকে ছয় থেকে সাতটি খালি কার্তুজ উদ্ধার হয়েছে।

এইদিন ইএফআর বাহিনীর সদর কার্যালয় খড়গপুর গ্ৰামীণ থানার সালুয়াতে জঙ্গল ঘেরা ফায়ারিং ময়দানে ঝাড়গ্ৰাম জেলা পুলিশ কর্মীদের গুলি চালানোর অনুশীলন চলছিল। প্রায় ষাট ফুট উচ্চতার পাঁচিল ঘেরা এই ফায়ারিং ময়দান থেকে প্রায় দুই কিমি দূরে অবস্থিত টাঙ্গাশোল এলাকা।

এই এলাকার শাকপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী পূজা বাড়ির সামনে টিউবওয়েল থেকে জল ভরছিল। তখন দুপুর একটা। সেইসময় পুলিশের ছোঁড়া একটি গুলি তার ডান কাঁধে বিদ্ধ হয়। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তাকে প্রথমে খড়গপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তারপর সেখান থেকে তাকে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ছাত্রীটির বাবা স্বপন মাহাতো জানিয়েছেন ” এইদিন মেয়ে বাড়ির সামনে একটি টিউবওয়েল থেকে জল ভরছিল। সেইসময় সালুয়া ফায়ারিং ময়দান থেকে পুলিশের ছোঁড়া গুলি আমার মেয়ের ডান কাঁধে লাগে। বর্তমানে সে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

আমরা খুব চিন্তায় রয়েছি।” তবে জেলা পুলিশ সুপার দীনেশ কুমার গুলির তত্ত্ব উড়িয়ে দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন বন্দুক থেকে দুর্ঘটনাবশত বেরিয়ে আসা একটি স্প্লিন্টারের আঘাতে জখম হয়েছে মেয়েটি। তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে তিনি জানালেন।

Advertisement

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!