Sunday, December 5, 2021
Homeজেলাপশ্চিম মেদিনীপুরখড়গপুর পুরসভার এলাকায় পরিশ্রুত পানীয় জল সরবরাহের জন্য নবনির্মিত বোরিং উদ্বোধন
Advertisement

খড়গপুর পুরসভার এলাকায় পরিশ্রুত পানীয় জল সরবরাহের জন্য নবনির্মিত বোরিং উদ্বোধন

Advertisement

Advertisement

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: পুরসভার উন্নয়নের কাজেও শাসকদলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ছায়া। শুক্রবার সকালে খড়গপুর পুরসভার ছয় নম্বর ওয়ার্ডের মাঠপাড়া এলাকায় পরিশ্রুত পানীয় জল সরবরাহের জন্য নবনির্মিত একটি বোরিং উদ্বোধন করা হয়েছে।

- Advertisement -
Advertisement
- Advertisement -

উদ্বোধন করেছেন পুরসভার চেয়ারপারসন প্রদীপ সরকার। এই অনুষ্ঠানে দেখা গিয়েছে পাশের সাত নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর তথা কোঅর্ডিনেটর কল্যাণী ঘোষকে। কিন্তু দেখা যায় নি এই ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর তথা কোঅর্ডিনেটর অরূপ কুন্ডুকে। জানা গিয়েছে তিনি এইদিন শহরে ছিলেন না।

যদিও বারবার তাঁকে ফোন করা হলেও যোগাযোগ করা যায় নি। তবে এর আগেও এই ওয়ার্ডে নতুন পথবাতি লাগানোর অনুষ্ঠানেও তাঁকে দেখা যায় নি। সেইসময় তিনি জানিয়েছিলেন তাঁকে উপযুক্ত সম্মান ও গুরুত্ব দিয়ে ডাকা হয় নি। তবে এইদিন ঠিক কি কারনে শহরে অনুপস্থিত ছিলেন ফোনে যোগাযোগ করা সম্ভব না হওয়ায় জানা যায়নি।

তবে এই বিদায়ী কাউন্সিলর তথা কোঅর্ডিনেটরকে বেশ কয়েকমাস ধরে পুরসভার চেয়ারপারসন প্রদীপ সরকারের বিরুদ্ধাচরণ করতে দেখা যাচ্ছে। দলের ক্ষমতাসীন গোষ্ঠীর কোনও কর্মসূচিতে তাঁকে দেখা যায় না। এইদিন এই ওয়ার্ডের ভবানীপুর মাঠপাড়া এলাকায় নবনির্মিত বোরিং উদ্বোধনের পর সেখান থেকে বেরোন জল পান করেন পুরসভার চেয়ারপারসন প্রদীপ সরকার।

তিনি জানিয়েছেন বেশ কয়েকমাস ধরে অভিযোগ আসছিল পুরনো বোরিং থেকে সরবরাহ করা জল পানযোগ্য নয়। তাই এলাকার বাসিন্দাদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে নতুন এই বোরিং তৈরি করা হয়েছে। জানা গিয়েছে এই নতুন বোরিং চালু হলেও পুরনোটি বন্ধ করা হবে না।

এই বোরিং থেকে মূলত পান ও রান্নার জন্য পরিশ্রুত জল সরবরাহ করা হবে। এই বোরিং চালু হওয়ায় এলাকার দুশোটি পরিবার উপকৃত হবে। এদিকে এইদিন পুর কার্যালয়ে কলকাতা থেকে আসা পুর ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের বিশেষজ্ঞরা শহরে নোংরা ও কালো জল নিয়ে একটি আলোচনা করেছেন।

পুরসভার চেয়ারপারসন প্রদীপ সরকার বৃহস্পতিবার কলকাতায় গিয়ে রাজ্যের পুরমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের কাছে এই কালো ও নোংরা জলের সমস্যার বিষয়টি তুলে ধরে সমাধানের জন্য উদ্যোগ নেওয়ার অনুরোধ করেন। তারপরেই এইদিন পুর ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের একদল বিশেষজ্ঞদের পাঠানো হয়েছে।

Advertisement

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!