Thursday, December 2, 2021
Homeজেলাপশ্চিম মেদিনীপুরExclusive:বিপুল পরিমাণের শব্দবাজি উদ্ধার করল সবং থানার পুলিশ,গ্রেফতার ১
Advertisement

Exclusive:বিপুল পরিমাণের শব্দবাজি উদ্ধার করল সবং থানার পুলিশ,গ্রেফতার ১

Advertisement

Advertisement

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: সামনেই কালীপুজো ও দীপাবলি। তবে শব্দবাজির ব্যবহার নিষিদ্ধ। তাই কালীপুজোর আগে নিষিদ্ধ শব্দবাজি বিক্রি রুখতে গত কয়েকদিন ধরে সবং থানার পুলিশ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালাচ্ছে। সেইমতো গতকাল রাত্রে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমানের শব্দবাজি সহ এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করল সবং থানার পুলিশ।

- Advertisement -
Advertisement
- Advertisement -

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে,গতকাল সোমবার রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে সবং থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ আধিকারিক সুব্রত বিশ্বাসের নেতৃত্বে,উক্ত থানা এলাকার ৫ নং সারতা অঞ্চলের ঝিকুরিয়া বাটিটাকি এলাকায় বেশকিছু দোকানে অভিযান চালায় পুলিশ আধিকারিকরা।

এই অভিযানে বেআইনিভাবে বাজি মজুদ করে রাখার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে সবং থানার পুলিশ। ধৃত ওই ব্যক্তির নাম বিশ্বনাথ পন্ডিত (৩৫)। ধৃত ওই ব্যক্তিকে মঙ্গলবার মেদিনীপুর জেলা আদালতে তোলা হয় বলে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত,করোনা পরিস্থিতিতে বায়ুদূষণ রুখতে কোনও রকম বাজি বিক্রি ও পোড়ানো নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা করেন পরিবেশ কর্মী রোশনি আলী। সব ধরনের বাজি বিক্রি ও পড়ানো নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল কলকাতা হাইকোর্ট। ওই রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের শরণাপন্ন হয়েছিল আতশবাজি উন্নয়ন সমিতি। তারই রায়ে গতকাল সোমবার সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দেয়, সব বাজি নিষিদ্ধ নয়।

পরিবেশবান্ধব আতশ বাজি পোড়ানোর যেতে পারে তবে শব্দবাজি ব্যবহার করা যাবে না। সেই নিষেধাজ্ঞা ঘোষণার পর থেকেই জেলাজুড়ে পুলিশি অভিযান শুরু হয়। বর্তমান সময়েও চলছে করোনার দাপট। এখনও পর্যন্ত শুধু শব্দ বাজির উপর নজরদারি শুরু করেছে সবং থানার পুলিশ।

পাশাপাশি কোনরকম ভাবে বাজি বিক্রির ঘটনা সামনে আসলে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে স্পষ্ট করে দিয়েছে সবং থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ আধিকারিক সুব্রত বিশ্বাস।

 

 

 

 

 

 

Advertisement

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!