Thursday, December 2, 2021
Homeজেলাপশ্চিম মেদিনীপুরসবংয়ে চোলাই মদ খেয়ে যুবকের মৃত্যু,ক্ষোভ এলাকায়
Advertisement

সবংয়ে চোলাই মদ খেয়ে যুবকের মৃত্যু,ক্ষোভ এলাকায়

Advertisement

Advertisement

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: দীপাবলির রাতে চোলাই মদ খেয়ে মৃত্যু হল এক যুবকের। ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা সবং ব্লকের ৪ নং দশগ্রাম অঞ্চলের খাজুরী এলাকার দীঘিপাড়া এলাকায়। মৃতের নাম মধু মল্লিক (২৩)। এই ঘটনায় আবগারি দপ্তর ও প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন?

- Advertisement -
Advertisement
- Advertisement -

স্থানীয় বাসিন্দা ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে,দশগ্রাম অঞ্চলের খাজুরি বুথ এলাকার বাসিন্দা ওই যুবক পেশায় দিনমজুর। তার দুই ছোট ছেলেও রয়েছে। প্রতিদিনের মতো গতকাল দিনমজুরের কাজ সেরে বাড়ি ফেরে। তারপর এলাকায় চোলাই ঠেকে মদ্যপান করে। বাড়িতে এসে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ঝামেলা শুরু করে।

তারপরে বাড়ির সদস্যদের অজান্তে হাঁড়িকুড়ি, বাড়ির জিনিসপত্র থেকে সাইকেল বিক্রি করে বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। মধ্যরাতে উক্ত অঞ্চলের হরেকৃষ্ণ বুথ এলাকায় শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে ফের মদ্যপান করে স্ত্রীর সঙ্গে ঝামেলা শুরু করে। তারপরই কিছুক্ষণ পরে ওই যুবক অসুস্থ হয়ে পড়ে।

তখনই পরিবারের সদস্যরা ওই যুবককে উদ্ধার করে তড়িঘড়ি স্থানীয় একটি চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার পথে মৃত্যু হয় ওই যুবকের। এই ঘটনায় মৃত ওই যুবকের মা জবা মল্লিক বলেন,গতকাল মদ খেয়ে বাড়িতে ঝামেলা করার পর ছেলে শ্বশুরবাড়িতে চলে যায়। তারপর সেখানেও প্রচুর পরিমাণে মদ্যপান করে তারপরই অসুস্থ হয়ে মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় তিনি সবং থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করবেন বলে জানিয়েছেন।

অন্যদিকে স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ,দশগ্রাম অঞ্চলের খাজুরি বুথ,হরেকৃষ্ণ বুথ এলাকায় কিছু অসাধু ব্যক্তি বহুদিন যাবৎ চোলাই মদের কারবার চালাচ্ছে। চোলাই মদের হোম ডেলিভারির ব্যবস্থাও নাকি চলছে গোপনে। এর ফলে গ্রামের সুষ্ঠু পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। কম বয়সী ছেলেরা ও নতুন করে নেশাগ্রস্ত হয়ে পড়ছে। চোলাই মদ খেয়ে গ্রামে স্বামী-স্ত্রীর অশান্তি ও নিত্যদিনের ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

একের পর এক মদ্যপানের মৃত্যুর ঘটনায় আবগারি দপ্তর ও প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে এলাকার স্থানীয় বাসিন্দারা? স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, বেশ কয়েক বছর যাবৎ উক্ত এলাকাগুলিতে চোলাই ঠেকে রমরমা চলছে। তার সঙ্গে তিতাস ও জুয়ার আসর ও চলছে বেশ কিছু এলাকায়। এই ঘটনা নিয়ে পুলিশ প্রশাসন ও আবগারি দপ্তরের প্রতিনিধিদের বারংবার অভিযোগ করার পরেও কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বলে গুরুতর অভিযোগ করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য খড়্গপুর মহকুমা হাসপাতালে পাঠানো হবে।

 

Advertisement

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!