Saturday, May 28, 2022
Homeজেলাপশ্চিম মেদিনীপুরDebra: শেষমেষ গ্রামবাসীদের অভিযোগকে মান্যতা,বেআইনি বালি খাদানের তদন্তে প্রশাসন
Advertisement

Debra: শেষমেষ গ্রামবাসীদের অভিযোগকে মান্যতা,বেআইনি বালি খাদানের তদন্তে প্রশাসন

Advertisement

Advertisement

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: গ্রামবাসীদের অভিযোগই মান্যতা পেল। অভিযোগ ছিল দু’জন বালি খাদান মালিক সরকারের নির্ধারণ করে দেওয়া এলাকা ছাড়িয়ে অতিরিক্ত বালি তুলছেন অবৈধভাবে।

- Advertisement -
Advertisement
- Advertisement -

এই অভিযোগ তুলে মঙ্গলবার ডেবরা থানার ভরতপুর পঞ্চায়েতের কয়েকটি গ্রামের বাসিন্দারা বিক্ষোভ করেন। বালি উত্তোলন বন্ধ করে দেন। যদিও পরে পুলিশ গিয়ে অবরোধ তুলে দেয়। কিন্তু অভিযোগ পেয়ে বৃহস্পতিবার ডেবরা ব্লকের ভূমি রাজস্ব আধিকারিক ঘটনাস্থলে গিয়ে সরেজমিনে সবকিছু খতিয়ে দেখেন। প্রমাণ পান অবৈধভাবে বালি

উত্তোলনের অভিযোগের সারবত্তা। তারপরেই বৃহস্পতিবার রাতে ডেবরা ব্লকের ভূমি রাজস্ব আধিকারিক গর্গদেব ঘোষ দুই মালিকের বিরুদ্ধে ডেবরা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এই ব্যাপারে ডেবরা ব্লকের ভূমি রাজস্ব আধিকারিক গর্গদেব ঘোষ বলেছেন,

“গ্রামবাসীদের অভিযোগ ছিল অতিরিক্ত বালি উত্তোলনের ব্যাপারে। আমরা দেখতে পেয়েছি দুইজন বালি খাদান মালিক লিজ এরিয়ার বাইরেও বেশ কিছু এরিয়া কাটা হয়েছে। যেটা পুরোপুরি বেআইনি। আমি বৃহস্পতিবার রাতে থানায় দুই বালি খাদান মালিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছি।”

আর ভরতপুর গপঞ্চায়েতের প্রধান জুলফিকার আলি বলেছেন, “কংসাবতী নদীতে তিনাপাটনা, শালডোহরি ও তিনুয়া মৌজায় দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন করা হচ্ছিল। প্রায় দুই হাজার ফুট অতিরিক্ত বালি কাটা হয়েছে। গ্রামবাসীরা এই অবৈধ বালি উত্তোলন নিয়ে প্রতিবাদ করছিলেন।

এবারে সেই ন্যায্য প্রতিবাদ প্রমাণিত হয়েছে।” আর পুলিশ জানিয়েছে অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু হয়েছে। তদন্তের পর যা করা প্রয়োজন করা হবে। প্রয়োজনে দুই বালি খাদান মালিককে সমন পাঠানো হবে। কিংবা গ্রেফতার করা হবে।

Advertisement

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!