Sunday, September 19, 2021
Homeজেলাপশ্চিম মেদিনীপুরপিংলায় পারিবারিক অশান্তির জেরে হাতুড়ি দিয়ে মাথা থেঁতলে স্ত্রীকে খুন করার অভিযোগ...

পিংলায় পারিবারিক অশান্তির জেরে হাতুড়ি দিয়ে মাথা থেঁতলে স্ত্রীকে খুন করার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে,পলাতক স্বামী।

- Advertisement -

খড়গপুর ২৪×৭,(পিংলা,পশ্চিম মেদিনীপুর):-পারিবারিক অশান্তির জেরে হাতুড়ি দিয়ে মাথা থেঁতলে স্ত্রীকে খুন করার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে,পলাতক স্বামী।
মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার পিংলা থানার ৬ নম্বর ক্ষীরাই অঞ্চলের অন্তর্গত রামপুরা গ্রামে। মৃত গৃহবধূর নাম রাধারানী জানা পাল(২৮)। ইতিমধ্যে মৃত গৃহবধূ রাধারানী জানা পালের বাপের বাড়ির পক্ষ থেকে স্বামী ভোলানাথ পালের বিরুদ্ধে পিংলা থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে পিংলা থানার ৬ নম্বর ক্ষীরাই রামপুরা গ্রামের বাসিন্দা ভোলানাথ পালের সঙ্গে রাধারানী পালের দশ বছর আগে বিয়ে হয়। তাঁদের একটি নয় বছরের পুত্র সন্তান রয়েছে। ভোলানাথ পেশায় রাজমিস্ত্রি। জানা যায় গত কিছুদিন ধরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক অশান্তি চলছিল। গতকাল রাতে তাদের এই অশান্তি চরম আকার নেয়। অভিযোগ তারপর রাতে স্ত্রী ঘুমিয়ে পড়তেই। ভোররাতে ভোলানাথ তার স্ত্রীকে হাতুড়ি দিয়ে মাথা থেঁতলে খুন করে। মাথায় গুরুতর আঘাত নিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় দীর্ঘক্ষন পড়ে থাকে রাধারানী পাল। সকালবেলা ছেলে মাকে ডাকতে গিয়েই দেখে মা রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। ঘটনার খবর পেয়ে প্রতিবেশীরা ঘটনাস্থলে আসে। ঘটনায় খবর পেয়ে পিংলা থানার পুলিশ আধিকারিকরা এসে ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে পিংলা হাসপাতালে নিয়ে এলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে। অন্যদিকে মৃত গৃহবধূর বাবা পরিমল জানার অভিযোগ প্রায়ই জামাইয়ের সঙ্গে মেয়ের অশান্তি লেগে থাকত। আজ সকালে হঠাৎ এলাকা বাসিন্দাদের সূত্রে জানতে পেরে আমরা এলাকায় পৌঁছে দেখি। মেয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। মেয়েকে জামাই মদ্যপ অবস্থায় ভারী কোনো বস্তু দিয়ে খুন করেছে। ঘটনায় ওই গৃহবধূর বাপের বাড়ির তরফে পিংলা থানার খুনের মামলা রুজু করা হয়েছে।এদিকে ঘটনার পর থেকে মৃত গৃহবধূর স্বামী পলাতক। পলাতকের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পিংলা থানার পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে মৃতদেহ আজ ময়না তদন্তের জন্য খড়গপুর মহকুমা হাসপাতাল পাঠানো হবে।

 

- Advertisement -

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!