Sunday, December 5, 2021
Homeজেলাপশ্চিম মেদিনীপুরখড়গপুর গ্রামীণ মেলায় এসে, বিজেপির সমালোচনা করলেন মদন মিত্র।
Advertisement

খড়গপুর গ্রামীণ মেলায় এসে, বিজেপির সমালোচনা করলেন মদন মিত্র।

Advertisement

Advertisement

নিজস্ব সংবাদদাতা,খড়গপুর:-রাজ্যপালকে সবচেয়ে বেশি সংবিধান ভঙ্গকারী বলে মন্তব্য করলেন রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রী তথা তৃণমূল নেতা মদন মিত্র। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে সংবিধান বিরোধী বলে লাগাতার আক্রমণ করে চলেছে বিজেপি। এই প্রসঙ্গে মদন মিত্র বলেন মুখ্যমন্ত্রী যদি সংবিধান বিরোধী কোনও কাজ করে থাকেন তাহলে তো বিজেপি ব্যাবস্থা নিতে পারে। তারপরেই তিনি বলেন সবার আগে রাজ্যপালকে হঠাতে হবে কারন তিনিই সবচেয়ে বেশি সংবিধান বিরোধী। সবচেয়ে বেশি সংবিধান ভাঙ্গছেন রাজ্যপাল। পাশাপাশি অপর দলত্যাগী প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকে আক্রমণ করেন। তিনি শুভেন্দু অধিকারীকে ছোটো ভাই ও বাচ্চা ছেলে বলে উল্লেখ করেছেন। তিনি বলেন ” শুভেন্দু আমার ছোটো ভাইয়ের মত। বাচ্চা ছেলে। কি বলতে কি বলে ফেলে। ছেড়ে দিন। বলুক না। ওদের পরিবারকে অনেক দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার শুভেন্দু ও মুকুল রায়কে নোবেল পুরস্কার দেওয়া উচিত।” তারসাথে তিনি নাম না করে শুভেন্দু অধিকারীকে মীরজাফর অভিহিত করে বলেছেন ” আমার বাড়ি ভবানীপুর। প্রথম নির্বাচনে জিতেছি বিষ্ণুপুরে। জায়গার নাম বসন্তপুর। আর জেলার নাম হল মেদিনীপুর। কেউ এটাকে মীর্জাপুর বানাতে চেয়েছিল। কিন্তু আমরা মেদিনীপুর রাখব।

- Advertisement -
Advertisement
- Advertisement -

আর ঘরে গিয়ে ভাবছে আমরা কাঁচের ঘরে বসে আছি। আমি কাঁচের ঘরে নয়। হনুমানজীর যজ্ঞের পাশে দাঁড়িয়ে আছি। কোনও পৃথিবীর ঢিল, পাথর আমায় ছুঁতে পারবে না।” শুক্রবার দুপুরে খড়গপুর গ্ৰামীণ থানার বসন্তপুরে মদন মিত্র আসেন মহাবীর মিলন মেলা ও বিশ্ব কল্যাণ যজ্ঞের অনুষ্ঠানে। এখানে এইদিন একটি হনুমান মন্দিরে যজ্ঞের আয়োজন করা হয়। পাশাপাশি আগামী বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি কোনও প্রভাব ফেলতে পারবে না বলে তিনি জানালেন। বরং বিজেপির রাজনৈতিক স্বীকৃতি বাতিল হয়ে যাবে বলে তিনি জানিয়েছেন। তিনি বলেন ” আইপিএল, আইএসএলে বাইরে থেকে চারজনের বেশি খেলোয়াড় নেওয়া যায় না। বিজেপির গোটা দলটাই তৃণমূলের থেকে নিয়ে নিচ্ছে। ফলে বিজেপি নিজের টিমই রাখতে পারছে না। তাই বিজেপির রাজনৈতিক স্বীকৃতি বাতিল হয়ে যাবে।” এইদিন মদন মিত্রকে ঘিরে বসন্তপুরে মানুষের মধ্যে একটি উৎসাহ ও উদ্দীপনা নজরে পড়েছে।

Advertisement

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!