Sunday, December 5, 2021
Homeজেলাপশ্চিম মেদিনীপুরবেইমান,চামার,অসভ্য! এঁদের একটিও ভোট দেবেন না,শুভেন্দু অধিকারীকে বেনজীর আক্রমণ সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়ের
Advertisement

বেইমান,চামার,অসভ্য! এঁদের একটিও ভোট দেবেন না,শুভেন্দু অধিকারীকে বেনজীর আক্রমণ সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়ের

Advertisement

Advertisement

খড়গপুর ২৪×৭,দাঁতন: বেইমান, চামার, অসভ্য। এঁদের একটিও ভোট দেবেন না। এভাবেই শুভেন্দু অধিকারীকে বেনজীর আক্রমণ করলেন সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়।

- Advertisement -
Advertisement
- Advertisement -

বৃহস্পতিবার বিকালে দিদির দূত হিসেবে দাঁতন দুই নম্বর ব্লকের সাউরি থেকে ধনেশ্বরপুর পর্যন্ত পদযাত্রা শেষে একটি জনসভায় ভাষণ দেওয়ার সময় প্রাক্তন ভারতীয় ফুটবল দলের খেলোয়াড় তথা সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায় রীতিমতো নাম উল্লেখ করে শুভেন্দু অধিকারীকে এইভাবে আক্রমণ করলেন। তিনি বলেন ” শুভেন্দু অধিকারী একজন বেইমান। এত বড় চামার, এত বড় অসভ্য দিদির খেয়ে দিদির জন্য বড় হয়ে দিদিকে ছেড়ে এই দুর্যোগের সময় চলে গেল। বেইমানি না!” তারপরেই তিনি বলেন হিন্দুদের বেইমান শুভেন্দু অধিকারী। তবে তিনি এখানেই থামেন নি। শুভেন্দু অধিকারী ও তাঁর পরিবারকে আক্রমণ করে তিনি বলেন ” মেদিনীপুর স্বাধীনতা সংগ্রামের পুণ্যভূমি। এখানে অধিকারী বাড়িতে দুজন সাংসদ, মন্ত্রী, কাউন্সিলর, চেয়ারম্যান। কিছু বাকি দেয় নি। তেরঙ্গা ঝান্ডা নিয়ে হাঁটতেন। এখন গেরুয়া ঝান্ডা নিয়ে হাঁটছেন। লজ্জা।” তারপরেই সরাসরি নাম উল্লেখ করে শুভেন্দু অধিকারীকে আক্রমণ করতে গিয়ে বলেন ” শুভেন্দু অধিকারী বয়স কম আছে আপনার। কম বয়স। আপনি বলেছেন আপনাকে কেউ হারিয়ে দিলে আর কোনদিন রাজনীতি করবেন না। এবার আর আপনাকে রাজনীতি করতে হবে না। আপনাকে তাড়িয়ে দেবে। গো হারান হারবেন। আপনার সাথে কেউ নেই।” এইদিনের সভায় সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায় দিলীপ ঘোষকে মিথ্যাবাদী বলে উল্লেখ করেছেন। এছাড়া তিনি তৃণমূলকে ভোট দেওয়ার আবেদন জানিয়ে বলেন ” যদি মনে হয় প্রার্থী ভালো লোক নয়। তাতেও ভোট দেবেন। মনে করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতিনিধিকে ভোট দিচ্ছি। প্রার্থীর উপর দুঃখ ও রাগ হতে পারে। কিন্তু দিদিকে দেখে ভোট দেবেন। দয়া করে দেবেন। কোথাও বাইরে যাবেন না।” পাশাপাশি এবারে বিধানসভা নির্বাচনে একটি ভোটের মূল্য বোঝাতে গিয়ে তিনি বলেন অসুস্থ হলেও কষ্ট করে ভোট দিতে যেতে হবে।

এই বাংলাকে যারা শেষ করতে এসেছে তাদের বিরুদ্ধে ভোট দিয়ে বাংলাকে রক্ষা করতে হবে। তিনি বলেন এবারে বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ফের মুখ্যমন্ত্রী হবেন। আর ২৪০ র বেশি আসন পাবে। আর রাজ্যে যদি তৃণমূলের সরকার না হয় তাহলে তিনি সাংসদ পদ থেকে পদত্যাগ করবেন বলে জানালেন। তবে এইদিনের মিছিল ও সভায় ভিড় দেখে তিনি রীতিমতো অভিভূত বলে জানালেন। তিনি বলেন ” এত মানুষ দেখে আমি অভিভূত। জয়ের ব্যাপারে নিশ্চিত। মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হ্যাটট্রিক করতে চলেছেন।” এইদিনের সভায় উপস্থিত ছিলেন দাঁতনের বিধায়ক বিক্রম প্রধান, জেলা পরিষদের বিদ্যুৎ কর্মাধ্যক্ষ শৈবাল গিরি, জেলা মুখপাত্র দেবাশিস চৌধুরী সহ অনেকে।

Advertisement

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!