Thursday, December 2, 2021
Homeজেলাপশ্চিম মেদিনীপুরEXCLUSIVE: ভোটের মুখে বেআইনি বাজি কারখানায় অভিযান সবং পুলিশের,উদ্ধার প্রচুর বাজি
Advertisement

EXCLUSIVE: ভোটের মুখে বেআইনি বাজি কারখানায় অভিযান সবং পুলিশের,উদ্ধার প্রচুর বাজি

Advertisement

Advertisement

খড়গপুর ২৪×৭, সবং: ভোটের মুখে বাজি কারখানাগুলি পুলিশের মাথাব্যথার কারণ হয়ে উঠছে। জেলা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের রিপোর্টে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে, বেআইনি বাজি কারখানাগুলি নিয়ে। তাই গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সবং থানার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। এর মধ্যে উদ্ধার হয়েছে বাজি তৈরির মশলা সহ প্রচুর বেশকিছু সরঞ্জাম।

- Advertisement -
Advertisement
- Advertisement -

পুলিশ সূত্রে খবর, যেহেতু এই এলাকায় প্রায়ই বোমাবাজির ঘটনা ঘটে থাকে। সেখানে ভোটের আগে আনাগোনা শুরু হয় দুষ্কৃতীদের। বাজির মশলা বদলে রূপ নিতে পারে বোমায়। শুরু হয় তাণ্ডব। তাই আগে থেকেই সতর্ক প্রশাসন। ভোটের আগে ওই বাজি কারখানা গুলিকেই কাজে লাগাতে পারে দুষ্কৃতীরা এমনই আশঙ্কা পুলিশের। বেআইনি বাজি কারবারিদের বেশি টাকার টোপ দিয়ে বোমা বানানোর কাজে লাগানোর নজির এর আগেও মিলেছে। গরিব কারিগরেরাও সেই ফাঁদে পা দেন। অভিযোগ, কখনও বা প্রলোভনের বদলে কাজ করে হুমকি। রাজনৈতিক দলগুলির ছাতার তলায় থাকা দুষ্কৃতীরা তাই ভাবাচ্ছে প্রশাসনকে। আর সেই কারণেই প্রশাসন কোনো ফাঁকফোকর রাখতে চাইছে না স্পর্শ কাতর এলাকা গুলিতে।

পুলিশ সূত্রে খবর,শুক্রবার দুপুরে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে সবং থানার পুলিশ আধিকারিক গৌতম মাইতি নেতৃত্বে, বিশাল পুলিশবাহিনী। ১০ নম্বর ভেমুয়া অঞ্চলের রাধাকান্তপুর গ্রামে সমীর জানা নামে এক বাজি কারিগরের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। পুলিশ আসার খবর পেয়েই বাড়ি থেকে চম্পট দেয় অভিযুক্ত অবৈধ বাজি কারখানার মালিক। এদিনের এই অভিযানে, কুড়ি কেজি আতশবাজি,দশ কেজি বারুদ,পাঁচ কেজি কাঠ কয়লা সহ প্রচুর পরিমাণে বাজি তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। ইতিমধ্যে অভিযুক্ত ওই ব্যাক্তির বিরুদ্ধে নির্দিষ্ট ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ।

এ ব্যাপারে সবং থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ আধিকারিক (OC) গৌতম মাইতি জানিয়েছেন, বেশিরভাগ সময়ই এই এলাকায় বোমাবাজির ঘটনা ঘটে থাকে। তাই নির্বাচনের আগে যাতে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে তাই প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনো ফাঁকফোকর রাখা হচ্ছে না। এলাকায় তল্লাশি নিয়মিত চলবে যে কোনও পরিস্থিতির মোকাবিলায় তারা তৈরি।

Advertisement

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!