ভোট বয়কটের ডাক ডেবরার সত্যপুর গ্রাম পঞ্চায়েতে, কেন?

খড়গপুর ২৪×৭,ডেবরা:  এবারে ভোট বয়কটের ডাক দিলেন ডেবরা বিধানসভা কেন্দ্রের সত্যপুর গ্ৰাম পঞ্চায়েতের রাধাকান্তপুর বুথের কুঠাগেড়িয়া গ্ৰামের বাসিন্দারা। দীর্ঘ দশ বছর ধরে গ্ৰামে কোনও উন্নয়ন না হওয়ার অভিযোগ তুলে এই ভোট বয়কটের ডাক দেওয়া হয়েছে। বিশেষ করে গ্ৰামে দুই কিমি বেহাল রাস্তা সংস্কার করা না হলে এই ভোট বয়কটের সিদ্ধান্ত বহাল রাখা হবে বলে গ্ৰামবাসীরা সাফ জানিয়েছেন। ভোট বয়কটের সিদ্ধান্তে অটল থাকবেন এই গ্ৰামের ১২০ টি পরিবার।

এছাড়া গ্ৰামবাসীদের আরও অভিযোগ বাংলা আবাস যোজনা থেকে শুরু করে নির্মল বাংলা মিশন প্রকল্পের কোনও সুবিধা পান নি। বহু বাড়িতে শৌচাগার নেই। এমনকি পানীয় জলের কোনও ব্যবস্থা এই গ্ৰামে করা হয় নি বলে গ্ৰামবাসীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তাঁদের বক্তব্য সমস্যাগুলি নিয়ে স্থানীয় বিজেপির পঞ্চায়েত সদস্যকে অনেক বার বলা হয়েছে। কিন্তু কোনও সুরাহা হয় নি। সেই কারনে এই ভোট বয়কটের ডাক দেওয়া হয়েছে বলে গ্ৰামবাসীরা জানালেন। তবে ভোট বয়কটের ডাক শুধু মুখে নয়। রীতিমতো পোস্টার লাগানো হয়েছে ভোট বয়কটের ডাক দিয়ে।

তবে গ্ৰামবাসীদের এই ভোট বয়কটের ডাক দেওয়ার মধ্যে বিরোধী তৃণমূলের চক্রান্ত রয়েছে বলে জানালেন স্থানীয় বিজেপি গ্ৰাম পঞ্চায়েত সদস্য যতীন সিং। রাস্তার সমস্যার বিষয়টি স্বীকার করে তিনি বলেন রাস্তা সংস্কারের জন্য গ্ৰাম পঞ্চায়েতে বহুবার বলা হয়েছে। তাঁরা জানিয়েছেন টাকা বরাদ্দ হলে কাজ শুরু হবে। যদিও টাকা কবে বরাদ্দ হবে সেটি তিনি স্পষ্ট করে কিছু জানাতে পারেন নি। তবে বাকি অভিযোগগুলি ঠিক নয় বলে তিনি জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন গ্ৰামে পানীয় জল সহ শৌচাগারের ব্যাবস্থা রয়েছে। বাংলা আবাস যোজনায় আর মাত্র ছয়জনের বাড়ি পেতে বাকি রয়েছে। তিনি বলেছেন তৃণমূলের এই চক্রান্তের ফাঁদে দলের কিছু সমর্থক পা দিয়ে ফেলেছেন।

অপরদিকে তৃণমূলের ডেবরা ব্লক সভাপতি রাধাকান্ত মাইতি বলেছেন এরকম কোনও খবর জানা নেই। তবে ভোট বয়কট সমস্যার কোনও সমাধান নয় বলে তিনি মনে করেন বলে জানালেন।