কেশিয়াড়িতে বিজেপি কর্মীকে মেরে দাঁত ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ,অভিযুক্ত তৃণমূল

খড়গপুর ২৪×৭,কেশিয়াড়ী: রাত পোহালেই বাংলায় প্রথম দফার নির্বাচন, তার আগেই শুরু অশান্তি। এবার এক বিজেপি কর্মীকে মেরে দাঁত ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার কেশিয়াড়ি থানার জামবনি গ্রামে।

ঘটনায় গুরুতর আহত হয় অর্জুন সিং নামে এক বিজেপি কর্মী। আহত বিজেপি কর্মীর অভিযোগ আজ বেলা এগারোটা নাগাদ জমিনের কাজ সেরে বাড়ির ফেরার পথে। বেশ কয়েকজন তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতী পথ আটকে বেধড়ক মারধর করে। ভেঙে দেওয়া ওই বিজেপি কর্মীর দাঁত। বিজেপির করার অপরাধে এই হামলা বলে জানিয়েছেন আহত কর্মী। ঘটনায় আহত ওই বিজেপি কর্মীকে রক্তাক্ত অবস্থায় কেশিয়াড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ইতিমধ্যে কেশিয়াড়ি থানায় বিজেপির পক্ষ থেকে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। কেশিয়াড়ি বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপির প্রার্থী সোনালি মুর্মুর অভিযোগ, তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তাদের কর্মীদের ভয় দেখিয়ে সন্ত্রাস চালিয়ে ভোটে জিততে চাই। অন্যদিকে তৃণমূলের তরফে সম্পূর্ণ অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে, তৃণমূলের দাবি এই ঘটনার সঙ্গে কোনো রাজনৈতিক যোগ নেই। এটি সম্পূর্ণ জমিজমা সংক্রান্ত ব্যাপার নিয়ে সমস্যা। নির্বাচনের আগে বিজেপি মিথ্যা অভিযোগ করে তৃণমূলকে কালিমালিপ্ত করার চেষ্টা করছে। ভোটে মানুষ এর জবাব দেবে এই ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা এলাকায় বিশাল পুলিশবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।