ডেঙ্গু মোকাবিলায় অস্থায়ী ভিত্তিতে নিযুক্ত খড়গপুর পুরসভার এক সাফাই কর্মীকে মারধরের অভিযোগ, অভিযুক্ত তৃণমূল

খড়গপুর ২৪×৭:  ডেঙ্গু মোকাবিলায় অস্থায়ী ভিত্তিতে নিযুক্ত খড়গপুর পুরসভার এক সাফাই কর্মীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের এক কর্মী ও তার দলবলের বিরুদ্ধে। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল নেতারা। ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার দুপুরে খড়গপুর পুরসভার ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের গাড্ডা বস্তি এলাকায়।

জখম সাফাই কর্মীর নাম গণেশ নায়েক। বাড়ি এই ওয়ার্ডের প্রভাত কলোনীতে। মাথায় গুরুতর চোট অবস্থায় এই সাফাই কর্মীকে খড়গপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে খবর পেয়ে হাসপাতালে পৌঁছে যান বিজেপির তারকা প্রার্থী হিরণ, ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর তথা কোঅর্ডিনেটর অনুশ্রী বেহেরা, বিজেপির নেতা শ্রীরাও সহ অনেকে। পুলিশ জানিয়েছে কোনও অভিযোগ দায়ের হয় নি। অভিযোগ দায়ের হলে খতিয়ে দেখা হবে।

এই ব্যাপারে ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর তথা কোঅর্ডিনেটর অনুশ্রী বেহেরা জানিয়েছেন বেশ কয়েকদিন ধরে এলাকার তৃণমূল কর্মী ও তাঁর দলবল এই সাফাই কর্মীকে নানাভাবে উত্যক্ত করতেন। তার প্রতিবাদ করলে তাঁকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়। তারপর এইদিন দুপুরে একা পেয়ে এই সাফাই কর্মীকে গাড্ডা বস্তি এলাকায় কৃষ্ণা ও তার দলবল মারধর করে। এদিকে এটি পুরো পারিবারিক বিবাদের জেরে হয়েছে বলে জানালেন তৃণমূলের খড়গপুর শহর কমিটির সভাপতি রবিশংকর পান্ডে। তিনি বলেন এই ঘটনার সঙ্গে রাজনীতির কোনও সম্পর্ক নেই। এটি সম্পূর্ণ পারিবারিক বিবাদের ঘটনা। তবে ঘটনার জেরে এলাকায় উত্তেজনা রয়েছে।