গত দেড় মাস ধরে চলা শিকার উৎসবের জেরে উদ্ধার হওয়া, প্রাণী জঙ্গলে ছাড়তে বিপত্তি

খড়গপুর ২৪×৭:  অবৈধ শিকার উৎসবের জন্য উদ্ধার হওয়া বন্যপ্রাণীদের বনে ছাড়তে পারছে না বন দফতর। বিষয়টি স্বীকার করে নিয়েছেন বন দফতরের আধিকারিকরা। দেড় মাস আগে খড়গপুর শহরের নিমপুরা এলাকা থেকে পূর্ণবয়স্ক একটি গোসাপ উদ্ধার করে খড়গপুর বন বিভাগের হিজলি রেঞ্জের কর্মীরা।

সেইসময় গোসাপটির সামান্য চোট আঘাত ছিল। সেই অবস্থায় সেটিকে উদ্ধার করে হিজলি বন্যপ্রাণী উদ্ধার কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। তারপর সেটিকে শুশ্রূষা করে সুস্থ করে তোলা হয়। সেই থেকে এই গোসাপটি এই উদ্ধার কেন্দ্রে রয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে এতদিনে গোসাপটিকে বনে ছেড়ে দেওয়া যেত। কিন্তু সেটি আর করা যায় নি। কারন শিকার উৎসব। গত দেড় মাস ধরে শিকার উৎসব চলছে।

বন দফতরের আশংকা এই অবলা জীবটিকে এখনই জঙ্গলে ছেড়ে দেওয়া হলে পশু শিকারিরা দেখতে পেলেই এটাকে মেরে ফেলতে পারে। যে কারণে এই পূর্ণবয়স্ক গোসাপটিকে হিজলি বন্যপ্রাণী উদ্ধার কেন্দ্রে রেখে দেওয়া হয়েছে। এদিকে প্রকৃতির কোলে যেতে না পেরে এই গোসাপটি কিছুটা রুগ্ন হয়ে পড়েছে। এই ব্যাপারে বিট অফিসার সুব্রত সিনহা জানিয়েছেন গত দেড় মাস ধরে শিকার উৎসব চলছে।

সেই উৎসবের শিকার হয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় সুস্থ করে তোলার পরেও এই গোসাপটিকে প্রকৃতির কোলে ছেড়ে দেওয়া হয় নি। কারন পশু শিকারিরা এই প্রাণীটিকে দেখতে পেলেই মেরে ফেলবে। তবে শিকার উৎসব শেষ হলেই এই পূর্ণবয়স্ক গোসাপটিকে প্রকৃতির কোলে ছেড়ে দেওয়া হবে বলে তিনি জানালেন।