কেশিয়াড়ির বিধায়ক পরেশ মুর্মূকে,অজানা ফোন নম্বর থেকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ

মিহির জানা: অজানা ফোন নম্বর থেকে ফোনে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে কেশিয়াড়ির বিধায়ক পরেশ মুর্মূকে। আর এর পেছনে দলের একটি অংশ রয়েছে বলে মনে করছেন বিধায়ক পরেশ মুর্মূ। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার বিকালে।

ঘটনাটি মৌখিকভাবে পুলিশ প্রশাসনকে বিধায়ক জানিয়েছেন। তবে এখনও পর্যন্ত কোনও লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন নি। জানা গিয়েছে এইদিন কেশিয়াড়ি থানার নছিপুর গ্ৰাম পঞ্চায়েতের নছিপুর এলাকায় একটি সংবর্ধনা সভায় তিনি উপস্থিত ছিলেন। তারপর সেখান থেকে এই গ্ৰাম পঞ্চায়েতের ভসরা এলাকায় অপর একটি সভায় যাওয়ার জন্য গাড়িতে চাপেন। তখনই একটি অজানা নম্বর থেকে ফোন আসে।

অভিযোগ তাঁকে রীতিমতো ভয় দেখিয়ে বলা হয় সেখানে গেলে মারধর করা হবে। পাশাপাশি তাঁকে হুমকির সুরে পরামর্শ দিয়ে বলা হয় না যেতে। যদিও বিধায়ক এই হুমকি ফোন পাওয়ার পরও ভসরায় গিয়েছিলেন। তবে কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে নি। এই ব্যাপারে বিধায়ক পরেশ মুর্মূ বলেছেন ” গত দুই তিনদিন ধরে এই হুমকি ফোন আসছে।

আজকেও এসেছে। আমাকে ভসরায় সংবর্ধনা সভায় গেলে মারধর করার হুমকি দেওয়া হয়। ফোন পাওয়ার পর নাম জানতে চাইলে নাম প্রকাশ করে নি। তখন আমি বলি সাহস থাকলে সামনে আসার।” তারপরেই তিনি বলেন ” এটা দলের একটি অংশের পক্ষ থেকে করা হচ্ছে। তবে যারা এইসব করছে তাদের আমি তৃণমূলের লোক বলে মনে করি না।

বিষয়টি আমি দলের জেলা সভাপতি থেকে শুরু করে পুলিশ প্রশাসনের শীর্ষ মহলে মৌখিকভাবে জানিয়েছি। আর ঠিক করেছি এরপর ফের এইধরনের ফোন এলে থানায় অভিযোগ দায়ের করব।” আর কেশিয়াড়ি থানার পুলিশ জানিয়েছে এই ব্যাপারে এইদিন রাত পর্যন্ত কোনও অভিযোগ দায়ের করা হয় নি। ঘটনা জানাজানি হয়ে যাওয়ার পর কেশিয়াড়িতে তৃণমূল মহলে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।