ডেবরা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে খুলল কোভিড ইউনিট, উদ্বোধন করলেন সাংসদ দেব

KHARAGPUR 24X7:  করোনার তৃতীয় তরঙ্গ মোকাবিলায় কাজে লাগানো হবে ডেবরা সুপার স্পেশালিস্ট হাসপাতালে নতুন চালু হওয়া করোনা ইউনিট। সোমবার বিকালে ১৩৫ শয্যা বিশিষ্ট এই নতুন করোনা ইউনিটের উদ্বোধন হল ডেবরা সুপার স্পেশালিস্ট হাসপাতালে।

হাসপাতালের দোতলা ও তিনতলা পুরোটা। আর একতলার একাংশ নিয়ে চালু করা হল পাইপ লাইনের মাধ্যমে অক্সিজেন সরবরাহ সুবিধা যুক্ত এই করোনা হাসপাতাল। উদ্বোধন করলেন ঘাটালের সাংসদ দেব। উপস্থিত ছিলেন ডেবরার বিধায়ক তথা রাজ্যের কারিগরি শিক্ষা দফতরের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী হুমায়ূন কবির, জেলাশাসক রশ্মি কোমল, জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক নিমাই চন্দ্র মন্ডল, খড়গপুর মহকুমা শাসক আজমল হোসেন সহ অনেকে। উদ্বোধনের পর সাংসদ দেব করোনার তৃতীয় তরঙ্গ মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকার কথা উল্লেখ করেছেন।

তিনি বলেন ” তৃতীয় তরঙ্গের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। আর এই নতুন করোনা হাসপাতাল সেই কাজে লাগবে।” পাশাপাশি তিনি বলেছেন ” আমরা সবাই চেষ্টা করছি মানুষ যেন চিকিৎসা পায়। চিকিৎসার কারনে যেন মানুষের মৃত্যু না হয়।” তিনি বলেন কিছুদিন আগেও অক্সিজেন, শয্যা ও ওষুধপত্রের সমস্যা ছিল। কিন্তু এখন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দক্ষ নেতৃত্বে এই সমস্যার অনেকটাই সমাধান হয়েছে।

আর বর্তমানে করোনা সংক্রমণ কমছে বলে স্বস্তি প্রকাশ করে তিনি এরজন্য সাধারণ মানুষকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তিনি বলেন ” এরজন্য মানুষকে ধন্যবাদ জানাব। মানুষ আগের থেকে অনেক সচেতন হয়েছেন। কোভিড প্রটোকল মেনে চলছেন।আর প্রশাসন যেভাবে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছে বিশেষ করে পুলিশ ও স্বাস্থ্য কর্মীরা তারজন্য ধন্যবাদ।” আর জেলাশাসক রশ্মি কোমল জানিয়েছেন এই হাসপাতালের পরিকাঠামো অনেক উন্নত।

বিশেষ করে পাইপ লাইনের মাধ্যমে অক্সিজেন সরবরাহ করার ব্যবস্থা রয়েছে। ভালো স্বাস্থ্য কর্মী ও চিকিৎসক রয়েছেন। এছাড়া যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো। এইসব কারন বিবেচনা করে এই হাসপাতালটিকে বেছে নেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানালেন। পাশাপাশি করোনার গ্ৰাফ কমলেও আত্মতুষ্টির কোনও জায়গা নেই বলে তিনি স্পষ্ট করে দিয়েছেন।

পাশাপাশি এই হাসপাতালটি তৃতীয় তরঙ্গ শুরু হলে কাজে লাগবে বলে জানালেন। তিনি বলেন ” করোনা সংক্রমণের গ্ৰাফ কমছে। কিন্তু শেষ তো হয় নি। আর এখনও অনেক রোগী সংকটজনক অবস্থায় ভর্তি হচ্ছেন। তাছাড়া এই হাসপাতালটি তৃতীয় তরঙ্গ শুরু হলে কাজে লাগবে।” তিনি জানিয়েছেন এই করোনা হাসপাতালে সিসিইউ ব্যবস্থা থাকবে।