বালিচক উড়ালপুল পরিদর্শন করে,কাজের ঢিলেমি নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করলেন রাজ্যের কারিগরি শিক্ষা দফতরের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী হুমায়ূন কবির

KHARAGPUR 24X7 (DEBRA): রেল ও রাজ্য সরকারের যৌথ উদ্যোগে ডেবরা থানার বালিচক এলাকায় উড়ালপুল নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে। তাও প্রায় এক বছর তিন মাস হয়ে গিয়েছে। কিন্তু কাজ এখনও পর্যন্ত অসম্পূর্ণ রয়েছে। আর এই কাজের ঢিলেমি নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করলেন ডেবরার বিধায়ক তথা রাজ্যের কারিগরি শিক্ষা দফতরের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী হুমায়ূন কবির।

বুধবার তিনি বালিচক উড়ালপুলের কাজ পরিদর্শন করেন। সাথে ছিলেন খড়গপুর মহকুমা শাসক আজমল হোসেন, ডেবরার বিডিও শিঞ্জিনী রায়, ডেবরা পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষ বিবেকানন্দ মুখোপাধ্যায়, প্রদীপ কর সহ পূর্ত দফতরের আধিকারিকরা। এইদিন মন্ত্রী বালিচক রেলগেটের দুপারেই উড়ালপুল নির্মাণের স্থল পরিদর্শন করেছেন। জানা গিয়েছে অবিলম্বে মানুষের যাতায়াতের সুবিধার জন্য সার্ভিস রোডটি প্রস্তুত করার পরামর্শ দিয়েছেন।

আর নিকাশি ব্যাবস্থার উপর গুরুত্ব দিয়েছেন। এইদিন নির্মীয়মান উড়ালপুল পরিদর্শনের পর তিনি কাজের গতিতে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন ” বালিচক উড়ালপুল নির্মাণের কাজ অত্যন্ত ধীরগতিতে চলছে। এই কাজটি দ্রুত করার জন্য বলা হয়েছে। আর উড়ালপুলের পাশে রাস্তাটির অবস্থা খুবই খারাপ। অবিলম্বে এই রাস্তাটি চলাচল যোগ্য করার কথা বলা হয়েছে।

আর যানজট ঠেকানোর জন্য কিছু ভাবনাচিন্তা করা হচ্ছে। দেখা যাক কি হয়।” পাশাপাশি তিনি বর্ষাকালে জল জমার যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দেওয়ার জন্য নিকাশি ব্যাবস্থা উন্নত করার উপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছেন বলে জানালেন। অপরদিকে খড়গপুর মহকুমা শাসক আজমল হোসেন জানিয়েছেন এইদিন পূর্ত দফতরের আধিকারিকদের বলা হয়েছে অবিলম্বে সার্ভিস রোডটি প্রস্তুত করে দিতে।

আর যে দিকটায় নিকাশি নালা তৈরি করা হয় নি সেদিকে দ্রুত নিকাশি নালা তৈরির উপর বিশেষ জোর দেওয়া হয়েছে। এদিকে এইদিন মন্ত্রী হূমায়ুন কবিরের বালিচক উড়ালপুল পরিদর্শনকে স্বাগত জানিয়েছেন বালিচক স্টেশন উন্নয়ন কমিটির সম্পাদক কিংকর অধিকারী।

প্রসঙ্গত দীর্ঘ কয়েক দশকের দাবি ছিল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও ব্যস্ত বালিচক রেলগেটের উপর একটি উড়ালপুল নির্মাণের। গত বছরের মার্চে এই কাজ শুরু হয়। কিন্তু পরবর্তীকালে করোনার প্রকোপে গোটা দেশ জুড়ে লকডাউন শুরু হয়। ফলে তারপর থেকেই কাজ বিলম্ব হতে শুরু হয়।