রাজ্য বিধানসভায় দলত্যাগ বিরোধী আইন কার্যকরি করার চ্যালেঞ্জ শুভেন্দুর

KGP 24X7(DEBRA):  রাজ্য বিধানসভায় দলত্যাগ বিরোধী আইন কার্যকরি করার কথা বললেন রাজ্য বিধানসভায় বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। পাশাপাশি নাম না করে মুকুল রায়ের তৃণমূলে যোগ দেওয়ায় দলের কোনও ক্ষতি হবে না বলে কার্যত স্পষ্ট করে দিয়েছেন তিনি।

আর আগের মত বিধায়ক ভাঙানোর ঘটনা তিনি যে মেনে নেবেন না সেটিও স্পষ্ট করে দিয়েছেন। এই নিয়ে বিধানসভায় সরব হবেন বলে জানালেন। আর দলত্যাগ বিরোধী আইন মেনে কেউ দলত্যাগ করে অন্য দলে যোগ দিলে তাঁর কিছু বলার নেই বলে জানালেন। শনিবার বিকালে বিজেপি নেতা তথা রাজ্য বিধানসভায় বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী দলের ঘাটাল সাংগঠনিক জেলার একটি সভা করার জন্য ডেবরায় জেলা কার্যালয়ে আসেন। সেখানে এই জেলার ২১ জন জেলা কমিটির সদস্য, ২৭টি মন্ডল সভাপতি ও বিভিন্ন শাখা সংগঠনের কার্যকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

যদিও দেখা যায় নি এই সাংগঠনিক জেলার প্রাক্তন সভাপতি তথা পরাজিত প্রার্থী অন্তরা ভট্টাচার্যকে। তিনি জানিয়েছেন সভায় ডাক পেয়েছিলেন। কিন্তু শরীর খারাপ থাকায় সভায় উপস্থিত থাকতে পারেন নি। এদিকে রূদ্ধদ্বার কক্ষে সভা করার পর তিনি বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। সেখানেই তিনি মুকুল রায়ের দলত্যাগ নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে বলেন ” ভারতীয় জনতা পার্টির কর্মী সমর্থক কেউ বিচলিত নয়। আমাদের সমর্থনের ভিত্তিটা কোনও ব্যাক্তি কেন্দ্রিক নয়। আর আমিও ব্যাক্তিগতভাবে ভাবিত নই।

চিন্তিত নই। আমার এই ব্যাপারে কোনও মন্তব্য নেই। দলের পক্ষ থেকে জয়প্রকাশ মজুমদার ও দিলীপদা কালকে যা বলেছেন এটা আমাদের সকলের বক্তব্য।” তিনি বলেন বিরোধী বিধায়ক ভাঙানো ওনার দীর্ঘদিনের রোগ। উনি তাঁর রাজত্বে কোনো বিরোধী শক্তিকে রাখতে চান না।

গণতন্ত্রকে মানেন না। দলত্যাগ বিরোধী আইন যেটা পশ্চিমবঙ্গে আগে কার্যকর হয়নি। আমি বিরোধী দলনেতা হিসাবে দায়িত্ব নিয়ে বলছি পদ্ধতি জানি। দলত্যাগ বিরোধী আইন পশ্চিমবঙ্গে কার্যকর করে দেখাব। দলত্যাগ বিরোধী আইন মেনে দলবদল করতে হবে। এর বাইরে কোনও উপায় নেই।