দাঁতনে গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে, গ্রেফতার ৩

KGP 24X7(DANTAN):  বিয়ের আট মাসের মধ্যে এক গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ উঠেছে শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে দাঁতন থানার দক্ষিণ আমডিহা গ্ৰামে। পুলিশ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মৃতার স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়িকে শনিবার রাতে গ্ৰেফতার করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে ধৃতরা হলো স্বামী শ্রীমন্ত জানা, শ্বশুর বংশী জানা ও শাশুড়ি রীনা জানা। রবিবার ধৃতদের আদালতে হাজির করা হয়। বিচারকের নির্দেশে মৃতার স্বামী শ্রীমন্ত জানার দুদিনের পুলিশ হেফাজত হয়েছে। পুলিশ মৃতা গৃহবধূর মা চুমকি জানার একটি অভিযোগের ভিত্তিতে ধৃতদের বিরুদ্ধে একটি খুনের মামলা দায়ের করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে মৃতের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর স্পষ্ট হয়ে যাবে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ। আট মাস আগে দাঁতন থানার দক্ষিণ আমডিহা গ্ৰামের শ্রীমন্ত জানার সাথে রাজনগর গ্ৰামের লাবনীর বিয়ে হয়। অভিযোগ বিয়ের পর থেকেই গৃহবধূর উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা হত। কর্মসূত্রে নির্মাণ শ্রমিক শ্রীমন্ত হায়দরাবাদে থাকতেন। রাজ্যে কড়া বিধিনিষেধ চালু হওয়ার আগেই তিনি বাড়িতে ফিরে আসেন।

তারপর ফের কর্মস্থলে ফিরে যাওয়ার জন্য ট্রেনের টিকিট কাটেন শ্রীমন্ত। কিন্তু স্বামীকে যেতে দিতে রাজি হন নি লাবনী। তিনি আব্দার করেছিলেন তাঁকে সাথে করে নিয়ে না গেলে স্বামীকে যেতে দেবেন না। এই নিয়ে পরিবারে টানাপোড়েন শুরু হয়। অভিযোগ এই টানাপোড়েনের জেরে গৃহবধূকে মারধর পর্যন্ত করা হয়। তারপরেই শনিবার গৃহবধূর ঝুলন্ত মৃতদেহ পাওয়া যায় বাড়িতে।

এই ব্যাপারে মৃতার মা জানিয়েছেন ঘটনার আধ ঘন্টা আগেও শনিবার দুপুরে মেয়ের সাথে ফোনে কথা হয়। তার আধ ঘন্টা পরেই জামাই খবর দেয় মেয়ে আত্মহত্যা করেছে। তাঁর অভিযোগ মেয়েকে মেরে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। ঘটনার জেরে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।