সবং পঞ্চায়েত সমিতির উদ্যোগে,হুল দিবস উদযাপন

নিজস্ব সংবাদদাতা,সবং: মহা সমারহের মধ্যদিয়ে হুল আন্দোলনের রক্তক্ষয়ী ইতিহাসকে স্মরণ করলেন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষেরা। বুধবার রাজ্যের সঙ্গে ১৬৬ তম হুল দিবস উদযাপনে সামিল হলেন সবং ব্লকের আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষেরা। এদিন সবং পঞ্চায়েত সমিতির উদ্যোগে চাঁদকুড়ি ইউনিয়ন হাইস্কুল মাঠে এই হুল দিবস পালন করা হল।

এদিন রাজ্যের জল সম্পদ মন্ত্রী মানস ভুঁইয়া পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে হুল দিবস অনুষ্ঠানটি সূচনা করেন। পাশাপাশি রাজ্যের সমস্ত মানুষকে হুল দিবসের শুভেচ্ছা জানান তিনি। উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন বিধায়ক গীতা রানী ভূঁইয়া, খড়্গপুর মহকুমা শাসক আজমল হোসেন,সবং ব্লক সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক তুহিন শুভ্র মহান্তি, সবং থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক সুব্রত বিশ্বাস, প্রাণী ও মৎস দপ্তরের কর্মাধ্যক্ষ আবু কালাম বক্স, ব্লক সভাপতি অমল পান্ডা, বিকাশ ভূঁইয়া সহ অন্যান্যরা।

১৮৫৫ সালে আজকের দিনেই ‘সিদো,কানহু,বীরসা’ নেতৃত্বে জ্বলে উঠেছিল সাঁওতাল বিদ্রোহের আগুন। ব্রিটিশ সাম্রাজ্যবাদের বিরুদ্ধে ও ভারতবর্ষকে স্বাধীন করার লক্ষ্যে ছোটনাগপুরের মালভূমি অঞ্চল থেকে সেই আগুন ক্রমাগত ছড়িয়ে পরছিল দেশের বিভিন্ন প্রান্তে।

১৮৫৭ সালে সিপাহী বিদ্রোহ ইংরেজ শাসনের ভীতকেও নাড়িয়ে দেয়। আন্দোলনে শহীদ হন আদিবাসী নেতা সিদো,কানহু। সেই থেকে প্রতিবছর ঐতিহাসিক হুল আন্দোলনের হাজারো শহিদের আত্মবলিদানকে স্মরণ করে আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষেরা।