কেশপুরে তৃণমূল কর্মীর উপর হামলা, এলাকায় উত্তেজনা

KGP 24X7 DIGITAL: কেশপুরের কুমারি বাজারে হামলার শিকার এক তৃণমূল কর্মী। কেটে নেওয়া হল হাতের আঙুল। তির, বল্লম নিয়ে তার উপরে হামলা করা হয় বলে অভিযোগ।

গুরুতর আহত অবস্থায় হাবিবুর রহমান নামে ওই তৃণমূল কর্মীকে ভর্তি করা হয়েছে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে। অভিযোগের তির বিজেপির দিকে।

বুধবার বিকেলে দোকান খুলতে এলে ওই তৃণমূল কর্মীর উপরে হামলা করে দুষ্কৃতীরা। জানা যাচ্ছে হাবিবুর স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েতের উপ প্রধানের ভাই।

এদিন কেশপুরের কইগেরা এলাকায় তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে একটি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহত হন একজন। এরপর কুমারি বাজার এলাকায় হাবিবুর রহমানের উপরে তির, ধনুক, টাঙ্গি, বল্লম নিয়ে হামলা করা হয় বলে স্থানীয়দের দাবি। তিরবিদ্ধ হন হাবিবুর। একটি তির লেগেছে তার গলায় এবং অন্য একটি তির লেগেছে তার পিঠে। তার একটি আঙুলও কেটে নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ।

এদিকে, এই ঘটনায় অভিযোগের তির বিজেপির দিকে। কিন্তু গেরুয়া শিবিরের দাবি, ওই ঘটনায় কোনওভাবেই বিজেপি দায়ি নয়। এলাকার অধিকাংশ কর্মীই ঘরছাড়া। এটি আদিবাসীদের সঙ্গে তৃণমূলের বিবাদ।

হামলার ঘটনা নিয়ে তৃণমূলের জেলা সভাপতি অজিত মাইতি বলেন, হুল দিবসের দিন বিজেপি কিছু আদিবাসীকে নিয়ে এসে আমাদের এক কর্মীর উপরে হামলা করেছে। তাকে তির মেরছে, টাঙ্গি দিয়ে আঘাত করেছে। যারা মেরেছে তাদেরকে গ্রেফতার করতে পুলিসকে অনুরোধ করছি।