Monday, November 29, 2021
Homeজেলাপশ্চিম মেদিনীপুরExclusive: কেশিয়াড়িতে স্ত্রীকে গলা কেটে খুনের অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে
Advertisement

Exclusive: কেশিয়াড়িতে স্ত্রীকে গলা কেটে খুনের অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

Advertisement

Advertisement

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে খুন করার অভিযোগ ঘরজামাইয়ের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার দুপুরে কেশিয়াড়ি থানার সাঁতরাপুর গ্ৰাম পঞ্চায়েতের সিঙ্গাই গ্ৰামে। পুলিশ জানিয়েছে মৃতের নাম সোমা রানা(২৭)। ঘটনার পর অভিযুক্ত ঘরজামাইকে গ্ৰেফতার করা হয়েছে।

- Advertisement -
Advertisement
- Advertisement -

ধৃতের নাম গোপী রানা(৩৪)। বাড়ি বেলদা থানার মাতকাতপুর এলাকায়। পুলিশ মৃতের বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে ধৃত ঘরজামাইয়ের বিরুদ্ধে একটি খুনের মামলা দায়ের করেছে। রবিবার ধৃতকে আদালতে হাজির করা হবে। জানা গিয়েছে আট বছর আগে বেলদা থানার মাতকাতপুর এলাকার গোপীর সাথে কেশিয়াড়ি থানার সিঙ্গাই গ্ৰামের মেয়ে সোমার বিয়ে হয়।

বিয়ের এক বছর পর থেকেই পেশায় দিনমজুর গোপী শ্বশুরবাড়িতে ঘরজামাই হিসাবে থাকতে শুরু করেন।তাঁদের দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে। এই দম্পতির মধ্যে মাঝেমধ্যেই ঝগড়া বিবাদ হত। কিন্তু স্ত্রী তৃতীয়বার অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ার পর থেকে এই বিবাদ নিত্য ঘটনায় পরিণত হয়। এইদিন দুপুরে স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে তুমুল ঝগড়া শুরু হয়। অভিযোগ গোপী তখন মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন।

পরিস্থিতি বেগতিক দেখে সোমার মা প্রতিবেশীদের ডাকতে যান। ফিরে এসে দেখেন মেয়ে গলার নলি কাটা অবস্থায় পড়ে রয়েছে। আর গোটা মেঝে রক্তে ভেসে যাচ্ছে। খবর পেয়ে কেশিয়াড়ি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

যদিও ততক্ষণে সোমার মৃত্যু হয়। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। ঘটনার পর মৃতের স্বামী পালিয়ে যায়। তবে বিকালের দিকে তিনি ধরা পড়ে যান। এই ব্যাপারে মৃতের মা লক্ষ্মী রানা বলেন তাঁর মেয়েকে জামাই খুন করেছে। তাঁর শাস্তি দাবি করেন।

Advertisement

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!