মেদিনীপুর মেডিক্যালে আত্মীয়কে চিকিৎসা করাতে নিয়ে এসে,সর্বস্ব খোয়ালেন সবংয়ের হৃষিকেশ ওঝা

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: হাসপাতালে রোগী নিয়ে এসে সর্বস্ব খোয়ালেন রোগীর আত্মীয়। উধাও মোবাইল ফোন ও ১৬,০০০ টাকা। শুক্রবার রাতে এমন ঘটনা ঘটেছে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে।

হাসপাতালে রোগী নিয়ে এল আত্মীয়রা রাত্রে সাধারণত থাকেন মেদিনীপুর মেডিক্যালের চত্বরের অস্থায়ী শেডে।

আত্মীয়কে হাসপাতালে ভর্তি করে এভাবেই বেশ কয়েকদিন হাসপাতালে ছিলেন সবংয়ের বাদলপুর এলাকার হৃষিকেশ ওঝা। একসঙ্গে থাকার ফলে অন্যান্য রোগীর আত্মীয়দের সঙ্গেও তাঁর সখ্যতা গড়ে ওঠে।

হৃষিকেশ ওঝার অভিযোগ, শুক্রবার রাতে এক রোগীর পরিজন তাঁকে গ্লুকন ডি মেশানো জল খেতে দেন। সেই জল খেয়েই তিনি সংজ্ঞা হারান। শনিবার সকালে উঠে দেখেন, তাঁর মোবাইল ও ১৬,০০০ টাকা উধাও। পড়ে রয়েছে শুধু সেই ব্যক্তির মশারি। গোটা বিষয়টি জানানো হয়েছে মেদিনীপুর কোতোয়ালি থানায়।

প্রসঙ্গত, মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রয়েছে কোতোয়ালি থানার একটি আউটপোস্ট। পাশাপাশি হাসপাতালের নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছে প্রায় ৫৫ জন নিরাপত্তারক্ষী। হাসপাতালের বিভিন্ন প্রান্ত কার্যত মোড়ে রয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরায়। এর পরও কীভাবে মাদকচক্র সক্রিয় তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন?

ঘটনা প্রসঙ্গে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, এই ঘটনা হাসপাতালের মধ্যে নয়। রোগীদের ঝড় জল থেকে বাঁচার জন্যই ওই শেড তৈরি করে দেওয়া হয়েছে। যদি রোগীর আত্মীয়রা আমাদের জানায় তাহলে আমরা সিসিটিভি দেখে ব্যবস্থা নিতে পারি।