Sunday, September 26, 2021
Homeজেলাপশ্চিম মেদিনীপুরডেবরায় জলের ট্যাঙ্ক তৈরির দাবি,শাসকদলের নেতাদের বিরুদ্ধে পড়ল পোস্টার

ডেবরায় জলের ট্যাঙ্ক তৈরির দাবি,শাসকদলের নেতাদের বিরুদ্ধে পড়ল পোস্টার

- Advertisement -

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: জল ট্যাঙ্কের প্রতিশ্রুতি পূরণ হয়নি। প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল সাতদিনের মধ্যে নতুন একটি জলট্যাঙ্ক তৈরি করে দেওয়া হবে।

কিন্তু সেই প্রতিশ্রুতি পূরণ না হওয়ায় এবারে শাসকদলের নেতাদের বিরুদ্ধে এলাকায় প্রচুর পোস্টার পড়েছে। যদিও তৃণমূলের নেতৃত্ব এই পোস্টারকে কোনও গুরুত্ব দিতে নারাজ। তবে ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে ডেবরা থানার গোলগ্ৰাম গ্ৰাম পঞ্চায়েতের করন্ডা বাজার এলাকায়।

- Advertisement -

লাল কালিতে লেখা পোস্টারগুলিতে বলা হয়েছে সাতদিনের সময় নিয়ে এখনো করন্ডা বাজারে জলের ট্যাঙ্ক নতুন করে বসানো হল না কেন স্থানীয় তৃণমূল নেতা জবাব দাও। জানা গিয়েছে রাস্তা সম্প্রসারণের জন্য এই বাজার এলাকায় একটি যাত্রী প্রতিক্ষালয় ও জলের ট্যাঙ্ক ভেঙে দেওয়া হয়।

যদিও সেইসময় আশ্বাস দেওয়া হয় নতুন একটি জলট্যাঙ্ক তৈরি করে দেওয়া হবে। কিন্তু আজ পর্যন্ত সেই জলট্যাঙ্ক তৈরি করা হয় নি। ফলে এই বাজার এলাকার বাসিন্দাদের ও দোকানদারদের চরম দুর্ভোগে পড়তে হয়েছে। এখন অন্য জায়গা থেকে প্রয়োজনীয় জল নিয়ে আসতে হচ্ছে। আর এই জায়গাতেই বাজার এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

যদিও এই পোস্টারগুলি কারা লাগিয়েছেন সেটি কারোর কাছেই স্পষ্ট নয়। কারন পোস্টারের নিচে শুধু লেখা রয়েছে করন্ডা বাজার। তবে এই পোস্টার লাগানো নিয়ে তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে তরজা শুরু হয়েছে।

এই ব্যাপারে তৃণমূলের জেলা কমিটির সহ সভাপতি শ্যামল কুমার মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন রাস্তা সম্প্রসারণের জন্য এই জলের ট্যাঙ্ক ভেঙে দিতে হয়েছে। কিন্তু এখন বর্তমানে জায়গার সমস্যার জন্য তৈরি করা যাচ্ছে না। বিষয়টি নিয়ে বাজার কমিটি থেকে শুরু করে দেশ কমিটি ও দুর্গোৎসব কমিটি বসে জায়গা ঠিক করা হবে।

পাশাপাশি বিজেপির নাম না করে এই পোস্টার লাগানোকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন ” কিছু থাকবে এলাকায়। সবাই তো আর তৃণমূল নয়। কিছু লোক রয়েছেন যাঁরা এই সমস্ত করে বেড়ানোর চেষ্টা করেন। উন্নয়নের কোনও চিন্তা ভাবনা নেই। তাঁরা শুধু পোস্টার দিতে ব্যস্ত থাকেন।

অন্য কিছু কাজ নেই।” অপরদিকে বিজেপির ডেবরা উত্তর মন্ডলের সভাপতি নির্মল শাসমল বলেছেন ” দলের কেউ জড়িত নয় এই পোস্টার লাগানোর পেছনে।

তবে এই ন্যায্য দাবি বিবেচনা করা উচিত।” তবে গোলগ্ৰাম গ্ৰাম পঞ্চায়েতের প্রধান মামনি দোলই অবশ্য এই জলট্যাঙ্ক তৈরির নির্দিষ্ট সময়সীমা জানাতে পারলেন না। তিনি বলেছেন ” যত তাড়াতাড়ি সম্ভব জলট্যাঙ্ক তৈরির কাজ হয়ে যাবে।”

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!