Saturday, August 13, 2022
Homeজেলাপশ্চিম মেদিনীপুরসবংয়ের বড়চাহারা-খড়িকা পর্যন্ত রাস্তার বেহাল দশা,সংস্কারের দাবি স্থানীয়দের
Advertisement

সবংয়ের বড়চাহারা-খড়িকা পর্যন্ত রাস্তার বেহাল দশা,সংস্কারের দাবি স্থানীয়দের

Advertisement

Advertisement

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: অনেক আগেই পিচ উঠে গিয়েছে রাস্তায়। পদে পদে বড় গর্ত আর খানাখন্দ।কোথাও রাস্তার কঙ্কালসার দশা। জল জমে বিটুমিন উঠে রাস্তার খোয়া বেরিয়ে কঙ্কালসার অবস্থা। গাড়ি যাতায়াত করতে গেলে যন্ত্রাংশ খারাপ হয়ে যাওয়ার সম্ভবনাও রয়েছে। এমনই ছবি পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সবং ব্লকের বড়চাহার থেকে খড়িকা পর্যন্ত প্রায় ১০ কিলোমিটার রাস্তার।

- Advertisement -
Advertisement
- Advertisement -

 

এলাকার মানুষের অভিযোগ, দীর্ঘ দিন ধরে এমনই বেহাল অবস্থায় পড়ে রয়েছে রাস্তা। সবং বিধানসভা কেন্দ্রের মহিনিবাজার,খরিকা,বড়চাহারা,সারতা সহ বেশকয়েকটি এলাকার বেশির ভাগ মানুষই ওই রাস্তার উপর নির্ভরশীল। যোগাযোগের একমাত্র এই রাস্তা বেহাল হওয়ায়। ব্লক অফিস-সহ অন্যান্য সরকারি অফিস, থানা, ব্যাঙ্ক, স্কুল, কলেজ থেকে বাজার যেতে নিত্য দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে বাসিন্দাদের। স্থানীয় পঞ্চায়েত থেকে শুরু করে সরকারি আধিকারিকদের জানানো সত্ত্বেও এখনো পর্যন্ত কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

 

স্থানীয় এলাকাবাসীরা বলেন,দীর্ঘ প্রায় ৫-৬ বছর বড়চাহারা থেকে খরিকা যাওয়ার এই রাস্তার বেহাল অবস্থায় পড়ে রয়েছে প্রায় দুর্ঘটনা ঘটছে। বর্ষায় সময় হলে রাস্তার উপরে জল জমে থাকে এরফলে নিত্যদিনের যাত্রীদের অসুবিধার সম্মুখীন হতে হচ্ছে। বিশেষ করে অসুস্থ রোগীদের চিকিৎসা করানোর জন্য নিয়ে যেতে অসুবিধা হচ্ছে। রাস্তা খারাপের জন্য মিলছে না অ্যাম্বুলেস। আবার কিছু সময় বেশি ভাড়া দিয়ে যাতায়াত করতেও যাত্রীদের। এভাবে কতদিন চালবে প্রশ্ন পথচলতি মানুষের?

 

এদিকে রাস্তার বেহাল দশা মেনে নিয়ে সবং ব্লক পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ বাবুলাল মাইতি বলেন, হ্যাঁ রাস্তার বেহাল অবস্থায় হয়েছে ঠিকই। কিন্তু বেশ কয়েক মাস আগে এই রাস্তার সংস্কারের জন্য টেন্ডার হয়েছিল এবং কাজও শুরু হয়েছিল। পূর্ব মেদিনীপুরের কিশোর জানা নামে এক ব্যাক্তি টেন্ডার নিয়েছিল কাজ করে দেওয়ার জন্য। কিন্তু তিনি আর কাজ করলেন না। এর ফলে রাস্তার সংস্কারের কাজ বাকি রয়ে গেছে। আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি খুব শীঘ্রই রাস্তা সংস্কারের কাজ শুরু হবে।।

 

 

 

 

Advertisement

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!