Thursday, October 6, 2022
Homeজেলাপশ্চিম মেদিনীপুরপুলিশের সাব-ইন্সপেক্টর বদলীকে কেন্দ্র করে খড়গপুর শহরে চাঞ্চল্য
Advertisement

পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টর বদলীকে কেন্দ্র করে খড়গপুর শহরে চাঞ্চল্য

Advertisement

Advertisement

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: ফের চাঞ্চল্য খড়গপুর শহরে। তবে কোনও দুঃসাহসিক কিংবা অসামাজিক ঘটনাকে কেন্দ্র করে নয়।

- Advertisement -
- Advertisement -

এবারে গোটা শহড় জুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে খড়গপুর টাউন থানার মকারাম চট্টোপাধ্যায় নামে এক এসআইয়ের বদলীকে কেন্দ্র করে। বুধবার তাঁর বদলীর আদেশ এসেছে। তাঁকে পাঠানো হয়েছে পিড়াকাটা থানায়। যদিও এই বদলীকে রুটিন মাফিক বলে দাবি পুলিশ কর্তাদের।

কিন্তু কানাঘুষা চলছে গত মাসের ২৭ তারিখে সকালে খড়গপুর শহরের প্রাণকেন্দ্র গোলবাজার এলাকায় একটি এটিএম গাড়ি থেকে টাকা লুঠের উদ্দেশ্যে দুষ্কৃতীরা চড়াও হয়। গুলি চালায় চার রাউন্ড। তাতে জখম হন এক নিরাপত্তা রক্ষী সহ এক কর্মী।

সেই ঘটনার তদন্তে নেমে ওইদিন সন্ধ্যায় খড়গপুর শহরের দেবলপুর এলাকায় এক তৃণমূল নেতার বাড়িতে পুলিশ অভিযান চালায়। নেতৃত্বে ছিলেন এই এসআই মকারাম চট্টোপাধ্যায়। তখন সুনীল ওরফে বাচ্চা সোনকার নামে এই তৃণমূল নেতার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে পুলিশের তুমুল বচসা হয়।

ধ্বস্তাধ্বস্তি পর্যন্ত হয়। তখনই অভিযোগ উঠে এই এসআইয়ের বিরুদ্ধে। অভিযোগ উঠে তিনি মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন। আর সেই অবস্থায় বাড়ির পুরুষদের সাথে মহিলাদেরও হেনস্থা করেন বলে অভিযোগ উঠে। সেই নিয়ে খড়গপুর শহরের শাসকদলের নেতারা সরব হয়েছিলেন।

যদিও এখনও পর্যন্ত খড়গপুর টাউন থানার পুলিশ ওই ঘটনায় জড়িত কোনও দুষ্কৃতীকে ধরতে পারে নি। কিন্তু তারমধ্যে এই এসআইয়ের বদলী হয়ে গেল ঘটনার দশদিনের মাথায়। ফলে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তৃণমূলের এক নেতা বলেন ওইদিনের ঘটনার জেরে মকারামবাবুকে বদলী করা হল বলে মনে হচ্ছে।

তবে এই ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খড়গপুর) রানা মুখোপাধ্যায় বলেছেন ” মকারাম চট্টোপাধ্যায়ের খড়গপুর টাউন থানায় আড়াই বছর হয়ে গিয়েছে। মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে গিয়েছে। তাই রুটিন মাফিক বদলী করা হয়েছে।

এছাড়া আর অন্য কোনও কারন নেই।” যদিও গোটা শহরে চাপা গুঞ্জন তৃণমূল নেতার বাড়িতে হানা দিয়ে লুঠের চেষ্টার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে তৃণমূল নেতার দাদাকে ধরতে যাওয়ার খেসারত দিতে হল এই এসআইকে।

Advertisement

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!