Sunday, September 26, 2021
Homeজেলাপশ্চিম মেদিনীপুরখড়গপুর শহরে তৃণমূলের নতুন কমিটি গঠন

খড়গপুর শহরে তৃণমূলের নতুন কমিটি গঠন

- Advertisement -

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: পুর প্রশাসকমন্ডলীতে জায়গা দেওয়া হয় নি। এবারে দলের নতুন শহর কমিটিতেও ঠাঁই হল না তৃণমূলের জেলার অন্যতম নেতা দেবাশিস চৌধুরীর। দলের রাশ যথারীতি রইল পুরসভার চেয়ারপারসন প্রদীপ সরকারের হাতে। তৃণমূলের নতুন খড়গপুর শহর কমিটি গঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার তৃণমূলের ২১ জনের নতুন কমিটি তৈরি হয়েছে খড়গপুর শহরে।

সেই কমিটিতে দেবাশিস চৌধুরীর অনুগামী তিনজনকে রাখা হলেও জায়গা হয় নি তাঁর। শুধু তাই নয় জেলা মুখপাত্র পদেও তাঁকে আর পুনর্বহাল করা হয় নি। সবমিলিয়ে দেবাশিস চৌধুরীর রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ একপ্রকার প্রশ্নের মুখে। তৃণমূলের নতুন খড়গপুর শহর কমিটিতে প্রধান উপদেষ্টা করা হয়েছে দেবাশিস ঘনিষ্ঠ প্রাক্তন পুরপ্রধান রবিশংকর পান্ডেকে। কমিটির সদস্য হিসাবে রাখা হয়েছে দেবাশিস ঘনিষ্ঠ ৩৪ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর অপূর্ব ঘোষকে। রাখা হয়েছে ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর শিবশঙ্কর ওরফে শিবাজী রাওকে।

- Advertisement -

নতুন কমিটিতে চেয়ারম্যান পদে রাখা হয়েছে প্রাক্তন পুরপ্রধান জহরলাল পালকে। আর সাধারন সদস্য হিসাবে রয়েছেন পুরসভার চেয়ারপারসন প্রদীপ সরকার। তিনি বলেছেন ” আমি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একজন সামান্য সৈনিক। দল যেভাবে বলবে সেভাবে চলব।” বৃহস্পতিবার সন্ধ্যাবেলায় খড়গপুর শহরের এই নতুন কমিটি অনুমোদন করেছেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি সুজয় হাজরা।

এদিকে পুর প্রশাসকমন্ডলীতে জায়গা না দেওয়া হলেও দলে গুরুত্বপূর্ণ কোনও পদ পাওয়ার ব্যাপারে খড়গপুর শহরে দেবাশিস অনুগামীরা আশাবাদী ছিলেন। কিন্তু সেই প্রত্যাশা পূরণ না হওয়ায় রীতিমতো হতাশার ছায়া দেবাশিস চৌধুরীর অনুগামীদের মধ্যে। আর গোটা শহরে দেবাশিস চৌধুরীর রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়ে রীতিমত জল্পনা শুরু হয়েছে। এমনকি দলের এক সূত্রে জানা গিয়েছে আগামী পুরসভা নির্বাচনে দেবাশিস চৌধুরী সহ তাঁর ঘনিষ্ঠ কাউকেই প্রার্থী করা হবে না।

একমাত্র অপূর্ব ঘোষকে প্রার্থী করা হতে পারে। কারন বিধানসভা নির্বাচনে খড়গপুর সদর কেন্দ্রে বহু ওয়ার্ডে তৃণমূল প্রার্থী প্রদীপ সরকার পরাজিত হলেও ৩৪ নম্বর ওয়ার্ডে জয়ী হয়েছিলেন। তবে সদ্য দলে যোগ দেওয়া অবসরপ্রাপ্ত দমকল আধিকারিক শতদল বন্দ্যোপাধ্যায়ের উত্থান রীতিমতো নজরকাড়া। নতুন গঠিত খড়গপুর পুরসভার সহ চেয়ারপারসন করার পর তাঁকে দলের নতুন শহর কমিটিতে নেওয়া হয়েছে।

এই নতুন কমিটি গঠন নিয়ে খুব একটা মন্তব্য করতে রাজি হন নি প্রাক্তন পুরপ্রধান রবিশংকর পান্ডে। নতুন কমিটিতে মুখ্য উপদেষ্টা পদে মনোনীত হওয়ার পর তিনি বলেন ” নতুন কমিটি কি হয়েছে আমি দেখি নি। আমি গত মঙ্গলবার ও বৃহস্পতিবারের সভায় শারীরিক কারনে উপস্থিত থাকতে পারি নি। আর নতুন কমিটি সম্পর্কে যা বলার জেলা ও রাজ্য নেতারা বলবেন।” অপরদিকে তৃণমূলের জেলা সভাপতি সুজয় হাজরা বলেছেন এক মাসের জন্য খড়গপুর শহরে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এই কমিটি এখন প্রতিটি বুথ ও ওয়ার্ড সভাপতি সহ নতুন কমিটি তৈরি করবে। সেই কমিটিতে দলের ঝান্ডা না ধরলেও দলের মনোভাবাপন্ন সমাজের বিভিন্ন স্তরের বিশিষ্ট মানুষজনকে রাখার কথা বলা হয়েছে। শহরের ৩৫ টি ওয়ার্ডের সমস্ত বুথ কমিটি এবং ওয়ার্ড কমিটির সভাপতি সহ নতুন কমিটি গঠনের পর আবার খড়গপুর শহর কমিটি গঠন করা হবে। তখন অনেক সংযোজন ও পরিমার্জন হবে কমিটিতে।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!