Sunday, September 19, 2021
Homeজেলাপশ্চিম মেদিনীপুরবেহাল রাস্তা নিয়ে ক্ষোভ,খড়গপুর রেলনগরীর বাসিন্দাদের

বেহাল রাস্তা নিয়ে ক্ষোভ,খড়গপুর রেলনগরীর বাসিন্দাদের

- Advertisement -

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল:  গলি থেকে রাজপথ। খড়গপুর শহরের সমস্ত রাস্তাই বেহাল দশা। তারসাথে রাস্তার ধারে জমে থাকা আবর্জনা। সবমিলিয়ে গোটা শহরের অবস্থা এখন এক নরককুন্ডে পরিণত হয়েছে। একে নিম্নচাপের প্রভাবে মাঝেমধ্যেই বৃষ্টি। তার উপর ভাঙ্গাচোরা রাস্তা। ফলে নাগরিকদের যাতায়াত করা দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে।

গোটা পুরসভার এমন কোনও ওয়ার্ড নেই যেখানে সবকয়টি রাস্তা ঠিকঠাক রয়েছে। এক থেকে ৩৫ নম্বর পর্যন্ত প্রতিটি ওয়ার্ডের রাস্তা বেহাল দশায় রয়েছে। ফলে মানুষজনের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভ ও বিরক্তি তৈরি হয়েছে। প্রশ্ন উঠছে প্রতিটি ওয়ার্ডের জন্য লক্ষ লক্ষ টাকা বরাদ্দ করা হয়। টাকাগুলি যাচ্ছে কোথায়? কেন বেহাল রাস্তাগুলি মেরামত করার উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে না? খড়গপুর শহরের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি বড় রাস্তা হল ইন্দা পীরবাবা থেকে খড়গপুর গ্ৰামীণ থানার ওয়ালিপুর পর্যন্ত যাওয়ার রাস্তাটি।

- Advertisement -

এই রাস্তাটিকে চলতিভাবে বলা হয় বিদ্যাসাগরপুরের রাস্তা। কারন এই রাস্তাটি খড়গপুর পুরসভার দুই, তিন ও চার নম্বর ওয়ার্ডের বিদ্যাসাগরপুর এলাকা হয়ে চলে গিয়েছে। এই রাস্তাটি একেবারে বেহাল দশা। রাস্তার মাঝখানে বড় বড় গর্ত তৈরি হয়েছে। পাশে কয়েকটি জায়গায় ধস নেমেছে। সবমিলিয়ে এক বিপজ্জনক অবস্থায় রয়েছে রাস্তাটি। পুরসভার ২৯ নম্বর ওয়ার্ডের ঝুলি এলাকায় হিজলি রেল স্টেশন পর্যন্ত যাওয়ার রাস্তাটি তো মারাত্মক অবস্থায় রয়েছে।

গোটা রাস্তাটি পুরো ভাঙ্গাচোরা অবস্থায় রয়েছে। এলাকার বাসিন্দা সোহম শোনকার রীতিমতো ক্ষোভ প্রকাশ করলেন রাস্তার এই বেহাল দশায়। বেহাল দশায় রয়েছে পুরসভার আট, উনিশ ও সাত নম্বর ওয়ার্ড ছুঁয়ে যাওয়া খড়িদা মিলন মন্দির ক্লাব মোড় থেকে সুভাষপল্লী এলাকায় পদ্মপুকুর মোড় পর্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটি। একই অবস্থা পাঁচ ও ছয় নম্বর ওয়ার্ডের দেবলপুর এলাকার রাস্তাটি। মালঞ্চ এলাকায় ১০ ও ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের বহু গলি রাস্তার ছালচামড়া উঠে গিয়ে কঙ্কাল বেরিয়ে এসেছে।

তবে শুধু পুর এলাকা নয়। রেল এলাকার বহু রাস্তার একই অবস্থা। তারমধ্যে গোলবাজার এলাকায় জনতা মার্কেট থেকে বাসস্ট্যান্ড পর্যন্ত অত্যন্ত ব্যস্ত ও গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটির অবস্থা ভয়ংকর আকার ধারন করেছে। রেল এলাকার কুড়ি নম্বর ওয়ার্ডের ওল্ড সেটেলমেন্ট এলাকার বিস্তীর্ণ রাস্তা বেহাল দশায় রয়েছে। বিশেষ করে খড়িদা বড়বাতি থেকে অরোরা গেট হয়ে সুভাষপল্লী এলাকার মুখ পর্যন্ত রাস্তাটি খানাখন্দে ভরে গিয়েছে।

পাশাপাশি রাস্তার ধারে আবর্জনা পড়ে থাকায় এইসব রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করা মানুষজনের কাছে দুর্বিসহ হয়ে উঠেছে। রাস্তার বেহাল দশা দেখে শুরু করে আবর্জনা জমে থাকার বিষয়টি অস্বীকার করেন নি পুরসভার প্রশাসমন্ডলীর ভাইস চেয়ারপারসন সেখ হানিফ। তিনি বলেছেন মাঝেমধ্যেই বৃষ্টি হচ্ছে। তারজন্য ওয়ার্ডের রাস্তাগুলি মেরামতের কাজ শুরু করা যাচ্ছে না।

তবে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে পুজোর আগেই রাস্তাগুলি মেরামতের কাজ শেষ করার। আর বৃষ্টির কারনে সাফাই কর্মীরা নিয়মিত আবর্জনা তুলতে পারছে না। তারজন্য বেশ কিছু এলাকায় আবর্জনা জমে থাকছে। তবে চেষ্টা করা হচ্ছে জমে থাকা আবর্জনা শীঘ্রই সরিয়ে ফেলার।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!