Saturday, October 16, 2021
Homeজেলাপশ্চিম মেদিনীপুরদাঁতনে গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যু,এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য

দাঁতনে গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যু,এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য

- Advertisement -

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: এক গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে খুনের। আর এই অভিযোগ করেছে ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী মৃতার পাঁচ বছরের কন্যা সন্তান মমতা দাস। তার অভিযোগ বাবা মারধর করার পর মাকে গলা টিপে মেরে ঝুলিয়ে দিয়েছে।

আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার দিনভর সরগরম রইল দাঁতন থানার আঙ্গুয়া গ্ৰাম পঞ্চায়েতের পানতুনিয়া গ্ৰাম। সকালে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। মৃত গৃহবধূর দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। পুলিশ জানিয়েছে মৃতের নাম পূজা দাস(২৮)। ঘটনার পর থেকে মৃতার স্বামী সুরজ দাস পলাতক। তবে মৃতার বাবা কমল কৃষ্ণ দের একটি অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ মৃত গৃহবধূর শ্বশুর উদয় দাসকে গ্ৰেফতার করেছে।

- Advertisement -

ধৃত ও পলাতকের বিরুদ্ধে পুলিশ মৃতার বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে একটি খুনের মামলা দায়ের করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। জানা গিয়েছে এইদিন সকালে গ্ৰামে ফুল তুলতে বেরোন এক মহিলা। তখন তাঁর নজরে পড়ে বাড়ির ভেতরে পাঁচ বছরের শিশু মমতা কান্নাকাটি করছে। সেই কান্নাকাটি দেখে তিনি বাড়ির ভেতরে যান। দেখেন পূজার নিথর শরীর বাড়ির মেঝেতে পড়ে রয়েছে।

তারপরেই ঘটনা জানাজানি হয়ে যায়। গ্ৰামবাসীরা জড়ো হয়ে যান দাস পরিবারের বাড়িতে। সকলেই দেখেন সুরজ পলাতক। আর পূজার মৃতদেহ পড়ে রয়েছে। কন্যা সন্তানটি কেঁদে চলেছে। খবর দেওয়া হয় থানায়। আর আটকে রাখা হয় মৃতার শ্বশুড়কে।

খবর পেয়ে দাঁতন থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। শিশুটিকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। সে পুলিশকে বুধবার রাতের সমস্ত ঘটনা খুলে বলে। তারপর পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে। আর আটক করে নিয়ে যায় মৃতার শ্বশুড়কে। পরে অভিযোগ পাওয়ার পর মৃতার শ্বশুড়কে গ্ৰেফতার করা হয়।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!