কপালে লাল টিপ, সিঁথিতে সিঁদুর! মুখ্যমন্ত্রীর ছবি বিকৃতিকে কেন্দ্র করে উত্তাল ভাতার

খড়গপুর ২৪×৭,কাটোয়া: বিধানসভা নির্বাচনের আবহে প্রত্যেকটি রাজনৈতিক দলের নেতারা একে অপরকে আক্রমণ করে যাচ্ছেন বিভিন্ন ইস্যুতে। তবে সেই আক্রমণ যে কখনও কখনও ব্যক্তিগত স্তরে নেমে যাচ্ছে এবং বিতর্ক সৃষ্টি করছে তা নিঃসন্দেহে বলা যায়। কিন্তু এবার যে ঘটনা ঘটল তা হয়তো শালিনতার সমস্ত সীমা ছাড়িয়ে গেল। বিকৃত করা হল খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি। তাঁর ছবিতে কপালে দেওয়া হলো লাল রঙের টিপ, মাথায় সিঁদুর! এই পোস্টারের দেখা মিলেছে পূর্ব বর্ধমান জেলার ভাতার বিধানসভা কেন্দ্রে।

ভাতারের তৃণমূল প্রার্থীর প্রচারে একটি ব্যানার লাগানো হয়েছিল ওই এলাকায়। সেখানেই প্রার্থীর পাশেই ছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি। সেই ছবি বিকৃত করা হয়েছে কপালে লাল রঙের টিপ এবং মাথায় সিঁদুর পরিয়ে দিয়ে! ছবি বিকৃত করার খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়তে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে তৃণমূল কর্মী এবং সমর্থকদের মধ্যে। স্বাভাবিকভাবেই বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে এই ঘটনার প্রেক্ষিতে।

তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে দাবি করা হয়েছে, রাতের বেলায় বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা এই কুরুচিকর ঘটনা ঘটিয়েছে। যদিও এই অভিযোগ সম্পূর্ণরূপে অস্বীকার করেছে ভারতীয় জনতা পার্টির শিবির। তাদের তরফ থেকে বলা হয়েছে, তৃণমূল কংগ্রেস অভিযোগ করছে সেটা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন এবং মিথ্যা।

এদিকে তৃণমূল কংগ্রেস দাবি করছে, বিজেপি যতই অভিযোগ অস্বীকার করুক এলাকার মানুষ বুঝে গিয়েছে তারা কি করতে চাইছে। তাই ভোট গ্রহণের দিন সাধারণ মানুষ যোগ্য জবাব দেবে ভারতীয় জনতা পার্টি শিবিরকে। প্রসঙ্গত, ২২ এপ্রিল হবে ভাতার এলাকার ভোটগ্রহণ। তার আগে এই ঘটনা নিয়ে ইতিমধ্যেই থমথমে এলাকা। পরবর্তী ক্ষেত্রে বিজেপি এবং তৃণমূল কংগ্রেস সংঘর্ষ হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে এখন থেকেই। তবে অবশ্য ভাবে ভোটের দিন এই পোস্টার বড় ইস্যু হয়ে যাবে বলে এখন থেকেই অনুমান করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশ।