Sunday, September 26, 2021
Homeজেলাপূর্ব বর্ধমানআউসগ্রামে তৃণমূল পঞ্চায়েত প্রধানকে ঘিরে ধরে গুলি, লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে মৃত্যু ছেলের

আউসগ্রামে তৃণমূল পঞ্চায়েত প্রধানকে ঘিরে ধরে গুলি, লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে মৃত্যু ছেলের

- Advertisement -

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: দুষ্কৃতীদের ছোড়া গুলিতে প্রাণ হারালেন পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামের দেবশালা পঞ্চায়েতের প্রধানের ছেলে চঞ্চল বক্সি(৪০)। একটি দলীয় বৈঠকে সেরে বাড়ি ফেরার পথে বাবা-ছেলেকে ঘিরে ধরে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। মঙ্গলবার গেঁড়াইয়ে আউশগ্রাম ২ নম্বর ব্লকের তৃণমূল কংগ্রেসের কার্যকরী সভাপতি শেখ লালনের বাড়িতে একটি দলীয় কর্মসূচি ছিল। সেটি শেষ করে দুপুরের খাবার খেয়ে বাবা শ্যামল বক্সিকে বাইকে চাপিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন চঞ্চলবাবু।

সেই সময় আউশগ্রামের গেঁড়াইয়ের জঙ্গলে ভাতকুণ্ডা রোডে তাদের লক্ষ্য করে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। হাতে ও পিঠে গুলি লাগে চঞ্চল বক্সির। সঙ্গে সঙ্গে বাইক নিয়ে রাস্তায় লুটিয়ে পড়েন বাবা ও ছেলে। ঘটনার খবর পেয়ে তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছান দলীয় কর্মীরা। তারা বাবা-ছেলেকে উদ্ধার করে জামতাড়া ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা চঞ্চলকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

- Advertisement -

চঞ্চলের বাবা শ্যামল বক্সি বলেন, রাস্তায় দুটি বাইক তাদের ওভারটেক করেই তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে থাকে। দুটি বাইকে ৪-৫ জন ছিল। মোট পাঁচ রাউণ্ড গুলি চালানো হয়। এনিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের ভাল্কি অঞ্চল সভাপতি অরূপ মিধ্যা, আউশগ্রাম ২ নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সৈয়দ হায়দার আলি দাবি করেন, বিজেপি আশ্রীত দুস্কৃতীরাই গুলি চালিয়েছে। কারণ দুয়ারে সরকার প্রকল্পে প্রচুর মানুষ ভীড় করছে। চঞ্চল এলাকায় খুবই জনপ্রিয় ছিল। সেই রাগেই তাকে খুন হতে হল।

যদিও খুনের ঘটনায় বিজেপির জড়িত থাকার অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন জেলা বিজেপির সাধারণ সম্পাদক শ্যামল রায়। তার পাল্টা দাবি তৃণমূল কংগ্রেসের দলের গোষ্ঠী কোন্দলে খুন হয়েছে চঞ্চল বক্সী। পঞ্চায়েতের ক্ষমতা কার হাতে থাকবে তা নিয়েই এই খুন।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!