অশান্তি রুখতে নন্দীগ্রামে ১৪৪ ধারা জারি করল নির্বাচন কমিশন

খড়গপুর ২৪×৭: রাত পোহালেই বঙ্গে দ্বিতীয় দফার নির্বাচন। এবার নন্দীগ্রামে ১৪৪ ধারা জারি করল নির্বাচন কমিশন। স্রেফ ৩০ জন মহিলা আধাসেনাই নন, শুভেন্দু অধিকারীর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকছে ২ সেকশন কেন্দ্রীয় বাহিনী। নিরাপত্তা বাড়ল সংযুক্ত মোর্চা সমর্থিত সিপিএম প্রার্থী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়েরও।

প্রথম দফায় ভোট মিটেছে নির্বিঘ্নেই। রাত পোহালেই দ্বিতীয় দফায় ভোটগ্রহণ রাজ্যের ৩০ কেন্দ্রে। ভোট হবে এবারের সবচেয়ে আলোচিত কেন্দ্র নন্দীগ্রামে। রাজ্যের অতিরিক্ত মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক অবশ্য জানিয়েছেন, ভোটের আগের দিন থেকে রীতিমাফিক রাজ্যের সব বিধানসভাকেন্দ্রে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। সেই নিয়মেই ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে নন্দীগ্রামেও। ভোটের পরের দিন অর্থাৎ শুক্রবার পর্যন্ত এই ধারা বলবৎ থাকবে। উল্লেখ্য, শুধুমাত্র নন্দীগ্রামের জন্য এবার এসপি পদমর্যাদার এক আধিকারিককে নিয়োগ করেছে কমিশন। পূর্ব মেদিনীপুরের বাকি অংশের নিরাপত্তা দায়িত্ব থাকছেন একই পদমর্যাদার অন্য এক অফিসার।

কমিশন সূত্রে খবর, আগামীকাল ভোটগ্রহণ চলাকালীন নন্দীগ্রামে মোতায়েন থাকবে ২২ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী। তার মধ্যে ২ কোম্পানি বাহিনী রিজার্ভে রাখা হবে। ওয়েব কাস্টিং-র ব্যবস্থা থাকছে এলাকার ৭৫ শতাংশ বুথে, নজরদারি চলবে আকাশপথেও। দিনভর নাকাচেকিং, প্রতিটি গাড়ির জিপিএস সিস্টেম আপগ্রেড করা, বাদ যাচ্ছে না কিছুই। এমনকী, আপদকালীন পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত রাখা হচ্ছে ২টি এয়ার অ্যাম্বুল্যান্সও।

নন্দীগ্রামে প্রচার পর্বে বারবার বাধার মুখে পড়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। ঝাঁটা, লাঠি, জুতো নিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন মহিলারাও। ভোটের দিন তেমন কিছু ঘটবে না তো? শুভেন্দুর নিরাপত্তায় অতিরিক্ত ৩০ জন মহিলা আধাসেনা মোতায়েনের খবর পাওয়া গিয়েছে আগেই। বিজেপি প্রার্থীর নিরাপত্তায় এবার ২ সেকশন কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিল কমিশন। ১ জনের বদলের ৪ জন নিরাপত্তারক্ষী দেওয়া হল সংযুক্ত ফ্রন্ট সমর্থিত সিপিএম প্রার্থী মীনাক্ষী মুখোপাধ্য়ায়কেও। জানা গিয়েছে, একুশের ভোটে নন্দীগ্রামে ভোটার সংখ্যা ২ লক্ষ ৫৭ হাজার ৯৯৯ জন। তাঁর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লক্ষ ৩৩ হাজার ২৫৭ জন, আর মহিলা ১ লক্ষ ২৩ হাজার ২৫৭ জন। তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার ১ জন।