Saturday, July 2, 2022
Homeজেলাপুরুলিয়াপুরুলিয়ায় শরীরে সূচ ঢুকিয়ে শিশু খুনের মামলায় মা ও তার প্রেমিককে ফাঁসির...
Advertisement

পুরুলিয়ায় শরীরে সূচ ঢুকিয়ে শিশু খুনের মামলায় মা ও তার প্রেমিককে ফাঁসির সাজা দিলো আদালত

Advertisement

Advertisement

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: মায়ের পরকীয়া সম্পর্কে বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল সাড়ে তিন বছরের শিশুকন্যাটি। তাই তাকে পৃথিবী থেকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল মা এবং তার প্রেমিক। চার বছর আগের সেই ঘটনায় নিহত শিশুর মা এবং তার প্রেমিককে ফাঁসির সাজা দিলো আদালত।

- Advertisement -
Advertisement
- Advertisement -

পুরুলিয়ার সুচ-কাণ্ডে নিহত শিশুর মা এবং তার প্রেমিক দুজনকেই মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত। ষড়যন্ত্র করে সুচ ফুটিয়ে শিশুকন্যাকে হত্যার মামলায় গত শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর পুরুলিয়ার একটি দ্রুত নিষ্পত্তি আদালত দুজনকে দোষি সাব্যস্ত করে। সরকারি আইনজীবীর আবেদনের প্রেক্ষিতে মামলাটির রায় স্থগিত রাখার পর আজ ২১ সেপ্টেম্বর শিশুটির মা মঙ্গলা গোস্বামী এবং তার প্রেমিক সনাতন গোস্বামী ঠাকুরকে আদালত ফাঁসির নির্দেশ দিয়েছে।

২০১৭ সালের ১১ জুলাই জ্বর ও সর্দি-কাশির উপসর্গ নিয়ে সাড়ে তিন বছরের মেয়েকে পুরুলিয়ার সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছিল মঙ্গলা। চিকিৎসকেরা জানিয়েছিলেন, সেই সময়েই শিশুটির শরীরে একাধিক ক্ষত এবং আঁচড়ের চিহ্ন ছিল। এমনকি শিশুটির নিম্নাঙ্গে রক্তের দাগও ছিল বলে জানিয়েছিলেন তারা।

এইসব ক্ষতের কারণ জানতে মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করে এক্সরে করা হলে দেখা যায় তার শরীরের ভেতর বিঁধে রয়েছে সাতটি সূচ। কীভাবে সুচ বেঁধানো হলো, তা জানতে চাওয়া হলেও তার সদুত্তর মেলেনি মঙ্গলার কাছ থেকে। পরে সে দাবি করে, প্রাক্তন হোমগার্ড সনাতনের বাড়ির পরিচারিকা সে। তার ধারণা সনাতনই তার মেয়ের উপরে নির্যাতন চালিয়েছে। মঙ্গলবার আদালতে ফাঁসির রায় শুনে নীরব ছিল সনাতন। যদিও মঙ্গলা বারবার জানিয়েছেন তিনি নির্দোষ।

Advertisement

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!